নির্বাচনের আগে সেনা বাহিনী থাকবে মাঠে

[su_heading size=”18″ margin=”30″]সংসদ নির্বাচনের ২ থেকে ৩ দিন অথবা ৭ থেকে ১০ দিন আগে নির্বাচনি এলাকায় সেনাবাহিনী যাবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ । বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে সংসদ নির্বাচনের জন্য নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের ব্রিফিং ও দিনব্যাপী  প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এই সব কথা বলেন। [/su_heading]

তিনি আরও বলেন, ‘ওই সময় নির্বাচনি এলাকায়  বিজিবি’ও (বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড) মোতায়েন থাকবে।’

বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট এবং ঐক্যফ্রন্ট দীর্ঘদিন ধরে ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতাসহ নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের  দাবি জানিয়ে আসছে। অন্যদিকে আওয়ামী লীগ স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে নির্বাচনে সেনা বাহিনী চান। দুই বড় দলের ভিন্ন মতের মধ্যে এত দিন পর সেনা বাহিনী নিয়ে নির্বাচন কমিশন নীরবতা ভাঙলেন।

সেনাবাহিনী মোতায়েনের  বিষয়টি এতদিন কমিশনের  চিন্তার মধ্যে থাকলেও বৃহস্পতিবার সরাসরি এ নিয়ে তাদের বক্তব্য এলো।

অনুষ্ঠানে কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘যদি কেউ নির্বাচনকে ভণ্ডুল করতে চায়, তবে আইনের  মধ্যে থেকে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নিতে হবে। এবার নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হলে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মুখ দেখানো যাবে না।’