‘জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিল পাকিস্তানের এজেন্ট হিসেবে’

মঙ্গলবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে কালেক্টরেট চত্বরে অনুষ্ঠিত কুষ্টিয়া মুক্ত দিবসের আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, ‘জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলো পাকিস্তানের এজেন্ট হিসেবে। কারণ স্বাধীনতা যুদ্ধের পর জিয়াউর রহমানের প্রত্যেকটি ভুমিকা প্রমানণ করে যে সে কখনো মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী ছিল না।’

তিনি আরও বলেন, ‘জিয়াউর রহমান দালাল আইন বাতিল করে যুদ্ধাপরাধী, মানবতাবিরোধী, রাজাকার ও আলবদরদের জেলখানা থেকে মুক্ত করেছিলেন।’

তিনি বলেন, ‘জিয়াউর রহমানের ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন বিএনপি ও বেগম খালেদা জিয়া। বেগম খালেদা জিয়া আরেক ধাপ এগিয়ে গিয়ে স্বাধীনতাবিরোধীদের পুনর্বাসন করেছেন। সুতরাং বিএনপি নামক রাজনৈতিক দলটি এখন আর মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী দাবি করতে পারে না।’

তিনি আরো বলেন, ‘জিয়াউর রহমান যেমন মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তিকে পুনর্বাসন করেছিলেন একইভাবে বেগম খালেদা জিয়া রাজাকারদের পুনর্বাসন করেছেন।’

এ আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেনসহ মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।