ঐক্যফ্রন্টের পথসভায় পথে পথে বাধা

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পথসভার মাইক খুলে নিয়ে গেছে পুলিশ এবং চেয়ার-টেবিল জব্দ করা হয়েছে। কোতোয়ালি থানার ওসি সেলিম মিঞার নেতৃত্বে মাইক ও চেয়ার- টেবিল নিয়ে যাওয়া হয়। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারণা আজ বুধবার সিলেট থেকে শুরু হচ্ছে।

এছাড়া এসময় ওসি বলেন, দরগায় সভা করার কোন অনুমিত তারা চাননি।

বিএনপি নেতা রেজাউল হাসান কয়েস লোদী বলেন, দরগা মাজার জেয়ারতের প্রচার শুরুর প্রাক্কালে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেবেন নেতৃবৃন্দ। এজন্য এখানে একটি ছোট মঞ্চ ও মাইক বসানো হয়েছিল। পুলিশ সবকিছু নিয়ে গেছে। আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচার শুরু করতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা সিলেট পৌঁছেছেন।

এরআগে গত ২৪ অক্টোবর সিলেটে আসেন ঐক্যফ্রন্ট নেতারা। সিলেটের ঐতিহাসিক রেজিস্ট্রারি মাঠে সমাবেশের মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

এদিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের সিলেটের কর্মসূচি দফায় দফায় পরিবর্তন হচ্ছে। বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত কর্মসূচি গ্রহণ ও স্থগিত হয়েছে কয়েক দফায়।

কি কারণে এমন হচ্ছে এ ব্যাপারে মুখও খুলছেন না ধানের শীষের নির্বাচনী প্রচারে ব্যস্ত স্থানীয় দায়িত্বশীল নেতারা।

দুপুরে মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন যুগান্তরকে জানান, মাজার জিয়ারতের পর নেতৃবৃন্দ সিলেট নগরীর রেজিস্ট্রারি মাঠ ও দক্ষিণ সুরমার মোগলাবাজারে পথসভা করার কথা থাকলেও আকস্মিকভাবে তা স্থগিত করা হয়েছে।

যদিও সিলেট-৩ আসনে বিএনপির প্রার্থী শফি আহমদ চৌধুরী বুধবার বেলা ১১টার জরুরী বৈঠক শেষে যুগান্তরকে জানিয়েছিলেন, তার নির্বাচনী এলাকা দক্ষিণ সুরমার মোগলাবাজারে পথসভা হবে।

অপরদিকে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ দুপুর সাড়ে ১২টায় যুগান্তরকে জানান, প্রচারণা ও পথসভার সকল প্রস্তুতি রয়েছে। তবে কখন, কোথায় তা কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের অনুমতি নিয়েই হবে। তিনি বলেন, কৌশলগত কারণে সার্বিক বিষয়ে সিদ্ধান্ত স্থগিত, পরিবর্তন ঘটতেও পারে।