আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘ফেথাই’, ১ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের কারণে দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোকে ১ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অধিদফতর। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ আরও ঘনীভূত হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে।

শুক্রবার আবহাওয়ার বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপটি উত্তর ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও ঘনীভূত হয়ে দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি এলাকায় গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এটি গত মধ্যরাতে (১৩ ডিসেম্বর) চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ১ হাজার ৬৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ১ হাজার ৬১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১ হাজার ৬৭০ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ১ হাজার ৬৩০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিল।

বাংলাদেশ ও ভারতের আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, গভীর নিম্নচাপটি আরও শক্তি সঞ্চয় করে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হলে এর নাম হবে ‘ফেথাই’। নামটি থাইল্যান্ডের দেয়া। তবে ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হানার কোনো আশঙ্কা নেই।

আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান জানান, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ১ নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত গভীর সাগরে বিচরণ না করতে বলা হয়েছে।

অপরদিকে ভারতের আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, শুক্রবারের মধ্যে গভীর নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। রোববার (১৬ ডিসেম্বর) এটি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়ে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) থেকে অন্ধ্রপ্রদেশে ভারী বৃষ্টিরও পূর্বাভাস দিয়েছে ভারতের আবহাওয়া বিভাগ।

শনিবার শুরু হচ্ছে পৌষ মাস। পৌষ-মাঘে ভর করে প্রকৃতিতে থাকবে শীত ঋতু। বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর) দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল পঞ্চগড়ের তেতুলিয়ায় ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ সময়ে ঢাকায় তাপমাত্রা ছিল ১৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।