ছারপোকা নির্মূল হবে সহজে : জেনে নিন কিভাবে ছারপোকা দূর করবেন

সারা দিন পরিশ্রম করে বাসায় ফিরেছি। একটু প্রশান্তির ঘুম দূর করে দিবে সকল ক্লান্তি। একটু চোখ বুঝেছি, ঘুম দেবী ভর করতে শুরু করেছে। দুনিয়ার সকল কাজ ভুলে গেছি। রাজ্যের সকল শান্তি এখন প্রশান্তির ঘুমে। তখনই শরীরে হালকা যন্ত্রণা অনুভব করলাম। ঘুম দেবী পালিয়ে চলে গেল সাত সমুদ্র পারে। আরামের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। বিছানায় বসে বালিস নেড়েচেড়ে দেখলাম। ছোট একটি প্রাণী নিজ দায়িত্বে বাপ দাদার সম্পত্তি মনে করে আমার শরীর থেকে রক্ত চোষে নিচ্ছে। এই রক্তচোষাটার ছারপোকা, বিছানায় আমার নিত্য সঙ্গী।

ছারপোকার ইংরেজি নাম Bed Bug। সিমিসিডি গোত্রের পরজীবী পতঙ্গ এটি। ছারপোকা মানুষ বা অন্য উষ্ণ প্রাণীর রক্ত খেয়ে বেঁচে থাকে। ছারপোকা নিশাচর পতঙ্গ না হলেও এরা রাতে বেশি সক্রিয় থাকে।

ছারপোকার যন্ত্রণায় রাতের ঘুম হারাম করে সারা রাত বসে কাটিয়েছেন এমন লোকের সংখ্যা নেহায়েত কম নয়। আজকে জানাবো ছারপোকা থেকে বাঁচার উপায়।

০১) ছারপোকা সাধারণত অপরিষ্কার জায়গায় থাকতে পছন্দ করে। ঘর দীর্ঘদিন অপরিষ্কার রেখে দিলে ছারপোকা হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। বিশেষ করে ব্যাচেলর বাসায়। ছারপোকা দূর করতে তাই নিয়মিত ঘর পরিষ্কার করতে হবে। ছারপোকা বিছানা, বালিশ, ম্যাট্রেস ইত্যাদিতে বংশবিস্তার করতে পছন্দ করে। তাই এই সকল জিনিসের কাভার গরম পানি দিয়ে নিয়মিত ধোয়ে পরিষ্কার রাখতে হবে। ছারপোকা গরম সহ্য করতে পারে না। ছারপোকা দূর করার সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে এই সকল জিনিস নিয়মিত রোদে শুকানো।

০২) ছারপোকা দমনের জন্যে পুদিনা পাতা হতে পারে আপনার অস্ত্র। এক গবেষণায় দেখা গেছে ছারপোকা পুদিনা পাতার গন্ধ সহ্য করতে পারে না। আপনার বিছানা বা বালিশের নিছে পুদিনা পাতা রেখে দিতে পারেন।

০৩) ছারপোকা দূর করতে ডিটারজেন্ট স্প্রে করতে পারেন। এক লিটার পানিতে ৫ টাকা দামের একটি ডিটারজেন্ট মিশিয়ে ছারপোকার বসবাসের জায়গায় স্প্রে করতে হবে। এতে ছারপোকার সাথে ছারপোকার ডিমও নষ্ট হয়ে যাবে।

০৪) আমাদের দেশে এই পদ্ধতি জনপ্রিয় না-হলেও ছারপোকা দমনে ভ্যাকুয়াম একটি কার্যকর পদ্ধতি। ছারপোকার বসবাসের স্থান এবং মেঝেতে ভ্যাকুয়াম করুন।

০৫) ছারপোকা দমনের জন্যে স্থায়ী সমধান হচ্ছে কীটনাশক। বাজারে অনেক ধরনের কীটনাশক পাওয়া যায়। অনেকে রাস্তায় ফেরি করে ছারপোকা দমনের কীটনাশক বিক্রি করে। ১০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা দামের কীটনাশক আপনি কিনতে পারবেন। তবে কীট নাশক ব্যবহারের সময় মুখে মাক্স পরে নিবেন। কীটনাশক ছিটানো স্থান থেকে শিশুদের দূরে রাখবেন।

তো, এবার আপনি আপনার পছন্দ মতো প্রক্রিয়া অনুসরণ করে ছারপোকা দূর করুন। আর নয় মাইল্লাফিরার ছারপোকা, ঘুম হোক আপনার নিত্য সঙ্গী।

মি/ক/স/লা