বহিষ্কৃত জাতিসংঘ দূত ফিরিয়ে নিতে অস্বীকৃতি সোমালিয়ার

[su_heading size=”20″]জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেস সোমালিয়ায় জাতিসংঘের নতুন একজন দূতকে নিয়োগ দিতে শুক্রবার সম্মত হয়েছেন।[/su_heading]

দেশটির প্রেসিডেন্ট মানবাধিকার নিয়ে প্রশ্ন উত্থাপন করায় বহিষ্কৃত প্রতিনিধিকে ফিরিয়ে নিতে অস্বীকৃতি জানানোর পর তিনি সেখানে নতুন দূত নিয়োগ দিতে সম্মত হলেন। খবর এএফপি’র।
কূটনীতিকরা জানান, গুতেরেস শুক্রবার প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লাহি মোহাম্মাদের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন এবং রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে তাকে আবারো ফিরিয়ে নিতে তার প্রতি আহবান জানান। বিগত তিনদিনে এনিয়ে তিনি দ্বিতীয়বারের মতো সোমালিয়ার নেতার সঙ্গে কথা বলেন।
কূটনীতিকরা এএফপি’কে বলেন, প্রেসিডেন্ট তার সিদ্ধান্তে অটল থাকার কথা উল্লেখ করে বলেন, জাতিসংঘ দূত নিকোলাস হেসম একজন অগ্রহণযোগ্য ব্যক্তি এবং তাকে সোমালিয়ায় ফিরে আসার আর কোন সুযোগ দেয়া হবে না।
জাতিসংঘ মুখপাত্র ফারহান হক জানান, গুতেরেস সোমালিয়ার এমন সিদ্ধান্তে ‘গভীর দু:খ প্রকাশ’ করেছেন।
সোমালিয়ার সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ রুদ্ধদ্বার বৈঠক করে।
কূটনীতিকরা জানান, ওই বৈঠকে ব্রিটেনের উত্থাপন করা খসড়া প্রস্তাব বিবেচনা করতে চীন আরো সময় নেয়ার আহবান জানিয়েছে। ব্রিটেনের প্রস্তাবে সোমালিয়ার এমন সিদ্ধান্তের ব্যাপারে দু:খ প্রকাশ করা হয়। পরিষদ এ ব্যাপারে শনিবার তাদের প্রতিক্রিয়া জানাবে।

https://www.sondesh24.com/%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%A8-%E0%A6%AC%E0%A7%8B%E0%A6%A8%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%80-%E0%A6%8F%E0%A6%95-%E0%A6%A8%E0%A6%B0%E0%A6%B8%E0%A7%81%E0%A6%A8/