ঐতিহ্যবাহী চাটগাঁইয়া গরুর কালা ভুনা কিভাবে রান্না করবেন?

 ঐতিহ্যবাহী মজাদার গরুর কালা ভুনা। ছবি: সংগৃহীত

ছুটির দিন। সকালে বিছানা ছাড়তে একটু দেরি-ত হবেই। শয্যা ত্যাগ করে প্রাতরাশ সেরে খাবার টেবিলে গিয়ে বসলেন। টেবিলে সাজানো গরম গরম পরাটা আর গরুর কালা ভুনা । পরাটার সাথে গরুর রেসিপি দেখে কার না ভাল লাগবে? গরুর মাংস পছন্দ করে না এমন লোক খুঁজে পাওয়া দায়। তার উপর কালা ভুনা। রসনা বিলাসী সবার কাছেই চাঁটগাইয়া ঐতিহ্যবাহী এই রান্নার কদর রয়েছে। সুযোগ পেলে সবাই কালা ভুনার স্বাদ নিতে ভুল করবেন না। আজকে আমরা জানবো কিভাবে গরুর কালা ভুনা রান্না করতে হয়।

তার আগে জেনেনি গরুর কালা ভুনা কি?

সবার মধ্যে একটা ধারণা আছে, কালা ভুনা মানে গরুর মাংস ভেজে কালো করা। আসলে কালা ভুনা কিন্তু তা নয়। কালা ভুনা এমন এক ধরনের গরুর মাংসের রেসিপি যাতে মাংস খুবই নরম হয়ে যায়ে। হাড় থেকে মাংস আলাদা করতে পেশী শক্তির দরকার হয় না। তাছাড়া কালা ভুনায় মাংসের কোনায় কোনায় মসলা পৌছে যায়। যা মাংসের স্বাদ কে বাড়িয়ে দেয়।

উপকরণ:

এক কেজি মাংস রান্না করতে প্রয়োজন হবে ১ কাপ তেল, পিঁয়াজ কুচি ১ কাপ, হলুদ ১ চা চামচ, ১/২ চামচ মরিচের গুঁড়ো (যারা ঝাল খেতে পছন্দ করেন তারা প্রয়োজন অনুসারে মরিচ দিতে পারেন), ২ চামচ আদা বাটা, ২ চামচ রসুন বাটা, জিরা বাটা ১ টেবিল চামচ করে। সাথে ৩/৪টা এলাচ, দারুচিনি, লবঙ্গ, গোলমরিচ, তেজপাতা আর সবশেষে লবণ পরিমাণমতো। স্বাদ বাড়াতে খাঁটি সরিষার তেল ব্যবহার করতে পারেন।

প্রণালি : 

মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে। ছবি: সংগৃহীত

গরুর মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। পেঁয়াজ কুঁচি এবং কাঁচা মরিচ বাদে লবণ, তেল ও বাকি সব মশলা দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিন । মাখানো মাংস এবার চুলায় হালকা আঁচ রেখে জ্বাল দিতে হবে। এবার দুই কাপ পানি দিয়ে আবারো ঢাকনা দিয়ে দিন। মাংস সেদ্ধ হতে সময় লাগবে। যদি মাংস সেদ্ধ না হয় তবে আবারো গরম পানি এবং ঝোল বাড়িয়ে নিন। ঝোল শুকিয়ে, মাংস নরম হয়ে গেলে রান্নার পাত্রটি সরিয়ে রাখুন। এবার অন্য একটি কড়াই নিয়ে, তাতে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুঁচি এবং কাঁচা মরিচ ভাঁজতে থাকুন। সোনালি রং হয়ে এলে সেই কড়াইতে গরুর মাংস দিয়ে, হালকা আঁচে ভাজতে হবে। মাংস কালো হয়ে যাওয়া পর্যন্ত নাড়তে থাকুন, খেয়াল রাখতে হবে যাতে মাংস পুড়ে না যায়। সব শেষে রান্নাটি নামানোর আগে লবণটি চেখে নিন।পরিবেশন করুন সুন্দরভাবে। সুন্দর পরিবেশন বাড়িয়ে দেয় খাবারের প্রতি রুচি।