শীতে একটু বেশি ঘুমানো উচিত কেন?

পর্যাপ্ত ঘুমানোটা নিঃসন্দেহে সুস্থ জীবনের জন্য জরুরী।  নিয়মিত ঘুম শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখে, ওজন কমতে সাহায্য করে এমনকি আয়ু বাড়ায়। এই শীতে আরো একটি উপকারে আসতে পারে ঘুম, আর তা হলো ঠাণ্ডা-সর্দি-কাশি দূর করা।  যারা দৈনিক ৮ ঘণ্টা বা তার বেশি ঘুমান, তাদের ঠাণ্ডা লাগার ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় অর্ধেকেরও কম। এমনকি তাদের শরীরে রোগের ভাইরাসটি থাকলেও তারা আক্রান্ত হন না।

না, মোটেই মিথ্যে নয় এই তথ্য। গবেষণা থেকেই এই তথ্য বের হয়েছে।  জেএএমএ ইনটার্নাল মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় বলা হয়, কয়েক সপ্তাহ ধরে ঘুম কম হলে রাইনোভাইরাস (ঠাণ্ডা-সর্দির ভাইরাস) সহজে আক্রমণ করে ও অসুস্থ করে দেয়।  কারণ ঘুম কম হওয়াতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হয়ে পড়ে ও ভাইরাস শরীরকে সহজে কাবু করার সুযোগ পায়।

আরও পড়ুন : এই শীতে ঠোঁটের যত্ন নিন!

ওই গবেষণা করা হয় ১৫০ জন নারী-পুরুষের ওপর।  তাদেরকে আলাদা আলাদা ঘরে রাখা হয়।  তাদের নাকে ভাইরাসটিকে দেওয়া হয়। এরপর পাঁচ দিন ধরে তাদেরকে পর্যবেক্ষণ করা হয়।  তাদের শরীরে ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ দেখা যায় কিনা, তা দেখছিলেন গবেষকরা।  ফলাফল হিসেবে দেখা যায়, গবেষণার আগে যারা নিয়মিত ৭ ঘণ্টার কম ঘুমাতেন, তাদের ঠাণ্ডা লাগার ঝুঁকি বেশি। অন্যদিকে যারা ৮ ঘণ্টা বা তার বেশি ঘুমাতেন, তাদের ঠাণ্ডা লাগার ঝুঁকি অনেক কম।

সূত্র: ইয়াহু সায়েন্স