চটপটি বিক্রেতা থেকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী : অদম্য এক মেয়ের গল্প

ফাতেমা মায়ের সঙ্গে স্কুলের সামনে বসে চটপটি বিক্রি করতেন। আর স্বপ্ন দেখতেন স্কুলে যাবার। স্কুুলের শিক্ষার্থীদের দেখে তার এই স্বপ্ন আরও প্রবল হয়। ফাতেমার সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে।

শুধু স্কুলে নয়, সফলতার সঙ্গে পেরিয়েছেন স্কুল ও কলেজের গণ্ডি। চটপটি বিক্রেতা সেই মেয়েটি এখন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী।

অদম্য ওই ছাত্রী ভর্তি পরীক্ষায় অভাবনীয় সাফল্য দেখিয়ে এ বছর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় ব্যবসা প্রশাসন বিভাগ থেকে মেধা তালিকায় ৯১ দশমিক ৪৭ নম্বর পেয়ে ৩২৫তম হয়ে কৃতকার্য হন। তার এই সফলতার গল্পই এখন গুঞ্জরিত হচ্ছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে।

ছোট বেলা থেকে মায়ের সাথে চটপটি বিক্রি করে বড় হয়েছেন ফাতেমা। বাবা অন্যের বাড়ির দারোয়ান। জন্মের পর থেকেই বাবা মোহাম্মদ সাহাব উদ্দিনকে দেখে আসছেন অন্যের ভবনে নিরাপত্তা প্রহরীর দায়িত্ব পালন করতে। অভাবের সংসারে থেকেও স্বপ্ন ছুঁয়ে দেখতে চাইতেন ফাতেমা।  

ইচ্ছা আর মেধার বলে এবার স্বপ্ন ছুঁয়ে দেখার সুযোগ পেয়েছেন ফাতেমা। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এই ছাত্রীটির স্বপ্নের পাখা মেলে ধরুক সাতরঙা।