‘ঠাকরে’ সিনেমার মুখ্য অভিনেতা ছিলেন ধনেপাতা বিক্রেতা!

 বলিউডের শক্তিমান অভিনেতাদের সারিতে এখন উচ্চারিত হয় নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর নাম । তবে বলিউডে তাঁর দীর্ঘ পথ চলা সহজ ছিলনা। এমনও হয়েছে কাজ না পেয়ে ধনেপাতা বিক্রি করতে হয়েছে। সম্প্রতি কপিল শর্মার টিভি অনুষ্ঠানে নিজের জীবনের মজার মজার সব ঘটনা বলেন তিনি।

সময় বদলে গেছে । নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী এখন শুধু তারকা নন, একজন জাত অভিনেতা হিসেবে বলিউডের পরীক্ষায় সফলভাবে পাস করেছেন তিনি। সে জন্যই তাঁকে নেওয়া হয়েছে রাজনীতিবিদ বাল ঠাকরের মতো চরিত্র ফুটিয়ে তোলার জন্য।

চলতি মাসেই মুক্তি পেতে যাচ্ছে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী অভিনীত বলিউডের ছবি ‘ঠাকরে’। সেই ছবিতে রাজনীতিবিদ ও কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠন শিবসেনার প্রতিষ্ঠাতা বাল ঠাকরের চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি।

কপিল শর্মার অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী তার জীবনের বিভিন্ন গল্প শোনান । এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিল সহশিল্পী অমৃতা রাও।

একটি ঘটনা এমন—২০০ রুপির ধনেপাতা কিনেছিলেন নওয়াজউদ্দিন। সেগুলো খুচরা বিক্রি করেন কিছু লাভ করার জন্য। পাতাগুলো ক্রমেই বাদামি রং ধারণ করতে শুরু করলে তিনি দৌড়ে পাতাওয়ালাকে গিয়ে বলেছিলেন, ‘তোমার পাতা তো মরে যাচ্ছে।’ পাতাওয়ালা তাঁকে পরামর্শ দিয়ে বলেছিলেন, ‘বারবার পানি ছিটাতে হবে, তাহলেই পাতা সতেজ থাকবে।’ নওয়াজের পকেটে সেদিন তেমন টাকা ছিল না। টিকিট ছাড়া রেলগাড়িতে চড়েছিলেন তিনি। কিন্তু নির্দিষ্ট স্টেশনে পৌঁছাতে পৌঁছাতে ধনেপাতা ঠিকই বাদামি হয়ে গিয়েছিল। তাঁর ২০০ রুপিই জলে গিয়েছিল সেদিন।

আরেকটি গল্প বলতে গিয়ে নওয়াজ বলেন, জুনিয়র আর্টিস্ট হিসেবে একবার চার হাজার রুপি সম্মানী পান তিনি। সেদিন এই অর্থের অর্ধেক তাঁকে দিয়ে দিতে হয়েছিল তাঁর সমন্বয়কারীকে। বাকি অর্থ থেকে হোটেলের ভাড়া দিয়েছিলেন ১৮০০ রুপি আর ২০০ রুপি দিয়ে রিকশায় চড়ে ঘুরে বেড়িয়েছিলেন।

 

সূত্র: বলিউড হাঙ্গামা