নতুন চার নারী লেফটেন্যান্ট কর্নেল

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর দীর্ঘমেয়াদী কোর্সের চার নারী মেজর পদোন্নতি পেয়েছেন লেফটেন্যান্ট কর্নেল পদে।

এরা হলেন মেজর সানজিদা হোসেন, আর্টিলারি; মেজর সৈয়দা নাজিয়া রায়হান, আর্টিলারি; মেজর ফারহানা আফরীন, আর্টিলারি ও মেজর সারাহ্ আমির, ইঞ্জিনিয়ার্স।

বৃহস্পতিবার (২৪ জানুয়ারি) সেনাবাহিনী সদরদপ্তরে বাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ পদোন্নতিপ্রাপ্তদের র‌্যাংক ব্যাজ পরিয়ে দেন। এসময় উর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় , প্রধানমন্ত্রীর নারীর ক্ষমতায়নের অঙ্গীকারের অংশ হিসেবে ২০০০ সাল থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর দীর্ঘমেয়াদী কোর্সে নিয়মিতভাবে নারী অফিসার নিয়োগ করা হচ্ছে। ৪৭তম দীর্ঘমেয়াদী কোর্স থেকে শুরু হওয়া এসব নারী অফিসাররা ইতোমধ্যেই নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে পেশাগত দক্ষতা প্রদর্শনে সফল হয়েছেন। তাদের এই সক্ষমতার অংশ হিসেবে চারজন নারী অফিসারকে মেজর হতে লেফটেন্যান্ট কর্নেল পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছর ৩০ সেপ্টেম্বর সশস্ত্র বাহিনীর ইতিহাসে সর্বপ্রথম নারী মেজর জেনারেল পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত হয়েছেন ডা. সুসানে গীতি। মেজর জেনারেল সুসানে গীতি ১৯৮৫ সালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন। পরবর্তী সময় ১৯৮৬ সালে তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে নারী ডাক্তার হিসেবে ক্যাপ্টেন পদবিতে যোগদান করেন।