বন্যায় ভেসে গেছে মদিনার রাস্তা, বন্ধ স্কুল

সৌদি আরবে ভারী বর্ষণে সৃষ্ট হয়েছে বন্যা। ভেসে গেছে মদিনার রাস্তা। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে শহরের বড় বড় রাস্তা ও স্কুল। রোববার শুরু হওয়া ভারী বৃষ্টিপাত ও ধূলিঝড় অব্যাহত ছিল সোমবারেও।

সোমবার প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে এসব অঞ্চল থেকে প্রায় কয়েক ডজন বন্যকবলিত মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা যায়।

দেশটির সিভিল ডিফেন্স জানিয়েছে, ‘তারা তাবুক ও আল-জউফ থেকে ৬৫ জন এবং দুবার পশ্চিমাঞ্চল থেকে ৩৭ জন বন্যাকবলিত মানুষকে উদ্ধার করেছে। তাবুক, আরার ও আল-জউফের স্কুলগুলো সোমবার বন্ধ ঘোষণা করা হয়।’

বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশটির উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলটি। এসময় জনগণকে গাড়ি চালানো থেকে বিরত থাকাসহ সর্বোচ্চ পূর্বসতর্কতা অবলম্বনের জন্য বলেছে সিভিল ডিফেন্স।

সিভিল ডিফেন্সের মুখপাত্র মেজর মোহাম্মেদ আল-হাম্মাদি আরব নিউজকে বলেন, রিয়াদ, মক্কা, নর্দার্ন বর্ডার রিজিওন, হাইল, তাবুক, কাসিম, মদিনা, ইস্টার্ন প্রভিন্স, আসির, জাজান এবং আল-জউফের মানুষ অস্থিতিশীল আবহাওয়া মোকাবেলা করছে।

সিভিল ডিফেন্সের জেনারেল ডিরেক্টোরেট নাগরিক ও বাসিন্দাদেরকে এবং তাদের পরিবারের সদস্যদেরকে নিয়ে উপত্যকা বা বিপজ্জনক অঞ্চলে গিয়ে নিজেদের জীবন ঝুঁকির মুখে না ফেলার আহ্বান জানিয়েছেন।

দেশটির ‘জেনারেল অথরিটি ফর মেটিওরোলজি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল প্রটেকশন’ জানিয়েছে মঙ্গলবার পর্যন্ত আবহাওয়ার এই অবস্থা অব্যাহত থাকবে। শীতল তাপমাত্রা এবং তীব্র ঝড়সহ বজ্রবিদ্যুতের সম্ভাবনা আছে। রিয়াদ ও ইস্টার্ন প্রভিন্সে ধূলিঝড়েরও সম্ভাবনা আছে।