সুজিত মান্না’র কবিতা : দুয়ারফুলের বাগান

এখন তবে ভেবে দেখার পালা 

শয়তানদের চেপে ধরবো
মুখোমুখি দাঁড়িয়ে সজোরে বুকে লাথি মারার
সাহস সঞ্চয় করবো –

কিন্তু তার পরেও মারবো না , তাদের একটি করে
খাঁচা উপহার দেবো –

জীব জন্তুদের সবচেয়ে বড়ো শাস্তি দেওয়া হয়
এই পৃথিবীর অভিশাপ
তাদের পায়ে বাঁধা হলে

বেঈমান সমস্ত মুখোশের নীচে সেতু ভেঙে আছে
সমস্ত সমতলের আনন্দে কেঁপে উঠছে
তাদের মৃতপ্রায় ছাল

তাদের জীবনে নদী কি নামবে না কোনোদিন
এত প্রবাহ ধরে রেখেছি , এত জোরালো হচ্ছে স্বর

আর কীভাবে সৎ থাকলে একটা উদ্ভিদ আমার সম্পত্তি হবে


ভাঙতে পারিনি পরিসর

ভাঙতে না পারলে এভাবেই মোচড়ে দাঁত আটকায় সবাই

পরিসর কম , রোজ আটকে পড়ি ধোঁয়া সরানোয়

কীভাবে যে বাঁচা যায় প্রতি মুহূর্তে , খুঁজতে খুঁজতেই
একচোখের পরিবার থেকে সমস্যা আরো
দুচোখের হয়ে ওঠে

আমি কি এতোটাও অনিশ্চিত

সাজিয়ে দিয়েছি দুয়ারফুলের বাগান
ঘিরে দিয়েছি নিয়মরেখার চোখ
একসাথে বেড়ে ওঠার ধর্ম কি
বজায় থাকবে এবার