পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের ১৬তম কাউন্সিল, অমল ত্রিপুরা সভাপতি, সমর চাকমা সাধারণ সম্পাদক

বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) খাগড়াছড়ি জেলা শাখার ১৬তম কাউন্সিল সম্পন্ন হয়েছে।অমল ত্রিপুরাকে সভাপতি, সমর চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক ও নিকেল চাকমাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট খাগড়াছড়ি জেলা কমিটি গঠন করা হয়।

ইউপিডিএফ সমর্থিত চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) শনিবার সকালে খাগড়াছড়ি সদরে এই কাউন্সিলের আয়োজন করে। “শহীদদের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে অধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াইয়ে আগুয়ান সৈনিক হোন, ছাত্রসমাজের লৌহপ্রাচীর দূর্গ গড়ে তুলুন” স্লোগানে অনুষ্ঠিত সম্মেলন ও কাউন্সিলে সভাপতিত্ব করেন জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অমল ত্রিপুরা। এতে বক্তব্য দেন জেলা দপ্তর সম্পাদক সমর চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক রুপেশ চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের নেত্রী এন্টি চাকমা প্রমুখ।

বক্তারা সম্প্রতি স্বনির্ভর বাজারে সংঘটিত হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, সংস্কারপন্থী জনসংহতি সমিতির ক্যাডাররা সাধারণ জনগণকে অপহরণসহ প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চাঁদা আদায় করছে।

পরে কাউন্সিল অধিবেশনে পুরাতন কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। উপস্থিত সবার সর্বসম্মতিক্রমে অমল ত্রিপুরাকে সভাপতি, সমর চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক ও নিকেল চাকমাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়। ১৫ সদস্য বিশিষ্ট খাগড়াছড়ি জেলা কমিটি শপথ বাক্য পাঠ করান পিসিপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সুনয়ন চাকমা।

বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) ১৯৮৯ সালের ২০মে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৮৯ সালের ৪ মে রাঙ্গামাটি জেলার লংগদুতে সংগঠিত হত্যার প্রতিবাদ জানাতে বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক জুম্ম ছাত্র সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ঢাকায় সমবেত হয়ে একটি বৃহত্তর একক ও ঐক্যবদ্ধ প্লাটফর্ম গঠন করে। ২১শে মে পিসিপি ব্যানারে লংগদু গণহত্যার প্রতিবাদে ঢাকার রাজপথে জুম্ম ছাত্রছাত্রীদের প্রথম শোক মিছিল পালন করে।