নারীর হার্ট এটাকের ৬ টি প্রাথমিক উপসর্গ । জেনে রাখা ভাল

আপনি সিনেমা দেখছেন কিংবা কোনো নাটক। দেখলেন, একজন বুকে হাত চেপে ব্যথা অনুভব করে পড়ে মরে গেল। সিনেমায় কিংবা নাটকে আপনি, আমি, আমরা এভাবেই হার্ট এটাক দেখে থাকি। যদিও বাস্তব বলে হার্ট এটাক হুট করে হয় না। তার অবশ্যই অবশ্যই কিছু উপসর্গ থাকে৷ প্রায়শ আমরা সেসব উপসর্গকে গুরুত্ব দিই না৷ শুধু সেটা নয়, বলা হচ্ছে পুরুষদের হার্ট এটাক ও মহিলাদের হার্ট এটাকও এক নয়। এখানেও পার্থক্য বা ফারাক আছে৷

সচরাচর বুকে ব্যথা, দম বন্ধ হয়ে আসা, ঠান্ডা ঘাম দেওয়া ইত্যাদিকে সাধারণ উপসর্গ ধরা হয় হার্ট এটাকের।
কিন্তু নারীর হার্ট এটাকে আরও কিছু সাধারণ বা কমন উপসর্গ দেখা দেয়। যেমন : নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসা, বুক ধড়পড় করা, ঝাপসা দেখা, বুকে ব্যথা, ঘাড়সহ কাঁধে ব্যথা, বমি-বমি ভাব হওয়া, বমিসহ মাথাব্যথা, প্রচণ্ড ক্লান্তি অনুভব করা ইত্যাদিকেও নারীর হার্ট এটাকের উপসর্গ হিসেবে ধরা হয়ে থাকে।

কিন্তু আপনি যদি জানেন নারীর হার্ট এটাকের প্রাথমিক উপসর্গগুলো কী কী, তাহলে কেমন হবে? হ্যাঁ, অবশ্যই ভালো হবে। এবং এই উপসর্গগুলো প্রত্যেকের, বিশেষত নারীদের জেনে রাখা উচিত।

Women's Heart Attack
বুকে ব্যথা হওয়া নারীর হার্ট এটাকের সাধারণ একটি উপসর্গ। ছবি : ইন্টারনেট

[su_dropcap size=”4″ color=”#094356″]১[/su_dropcap]বুকে ব্যথা হওয়া: হার্ট এটাকের একেবারে প্রাথমিক বিষয়ই হচ্ছে আপনার বুকে ব্যথা হবে, আপনার অস্বস্তিবোধ হবে। এই ব্যথা শুরু হয়ে আস্তে আস্তে এর প্রকোপ বাড়বে। এর স্থায়িত্বকাল ২০ মিনিট পর্যন্ত হতে পারে। এবং ব্যথাটা হঠাৎ করেই অনুভূত হবে। এই ধরনের ব্যথা হলেই আপনাকে বিষয়টা আমলে নিতে হবে, এবং একদম অবহেলা করা যাবে না। এই ব্যথা বুকের বাম পাশে বা পুরো বুক জুড়ে হতে পারে। আপনার মনে হবে বুকে কেউ চেপে বসে আছে।

[su_divider top=”no”]

[su_dropcap size=”4″]২[/su_dropcap] বুকের ব্যথা ছড়িয়ে যাওয়া: বুকের ব্যথা ধীরে ধীরে ঘাড়ে, কাঁধে, গলায়, মুখের চোয়াল, পেছনে, হাতের বাহুতে ছড়িয়ে পড়ে। এই ব্যথা এমনকি হাতের কব্জিতেও ছড়িয়ে পড়তে পারে। এই ধরনের উপসর্গ পুরুষদের চেয়ে নারীদের মধ্যেই বেশি দেখা যায়!

[su_divider top=”no”]

[su_dropcap size=”4″][/su_dropcap] শরীরের উপরের অংশে অস্বস্তি: অনেক সময় বুকে ব্যথা হয় না, কিন্তু শরীরের উপরের অংশে অস্বস্তি হয়। এমন অস্বস্তি, মনে হবে গলা ধরে আসছে, হাত ভারী হয়ে আসছে। ঘাড়ে, শরীরের পেছনের অংশে ও মুখের চোয়ালে ব্যথা করবে। এই ব্যথা হঠাৎ করে হতে পারে, বা ধীরে ধীরে।

[su_divider top=”no”]

[su_dropcap size=”4″]৪[/su_dropcap]পাকস্থলী বা পেটে ব্যথা হওয়া: অধিকাংশ নারীর ক্ষেত্রে হার্ট এটাকের পূর্বে পাকস্থলী বা পেটে ব্যথা হয়। এবং এক্ষেত্রে মনে হবে পেটে কোনো হাতি এসে বসে আছে। একটা হাতি এসে বসে থাকলে যেরকম ভার হওয়ার কথা, তেমন ভার অনুভব করবেন।

[su_divider top=”no”]

[su_dropcap size=”4″][/su_dropcap] দম বন্ধ হয়ে আসা: মনে হবে দম বন্ধ হয়ে আসছে, শ্বাস নিতে কষ্ট হবে, বমি বমি লাগবে, মাথাব্যথাসহ বমি বমি লাগতে পারে, শরীর ঠান্ডা হয়ে ঘাম দেবে, নিজেকে উদ্বিগ্ন মনে হবে, ঝাপসা হয়ে আসবে চারপাশ। তখন আপনার মনে হবে আপনি ম্যারাথন দৌড়ে আছেন, কিন্তু আপনার পা চলছে না, আপনি পা ফেলতে পারছেন না।

[su_divider top=”no”]

[su_dropcap size=”4″][/su_dropcap] খুবই ক্লান্তি লাগা: অধিকাংশ নারীর হার্ট এটাকের পূর্বে চরম ক্লান্তি ভর করে। এমন ক্লান্তি লাগবে চেয়ারে বসে থাকলে উঠতে ইচ্ছে করবে না। এই ক্লান্তি এতই বেশি হবে যে, ওয়াশরুমে যেতেও ইচ্ছে করবে না।

এই ধরনের যেকোনো উপসর্গ দেখলেই বিষয়টি গুরুত্বের সহিত নেওয়া দরকার। প্রথমেই উচিত নিকটস্থ হাসপাতালে যোগাযোগ করা। হাতের কাছে হাসপাতাল না থাকলে মেডিসিন বা হৃদরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া।