পুনর্নির্বাচন ও প্রভোস্টের পদত্যাগ দাবি শিক্ষার্থীদের, বিক্ষোভ রোকেয়া হলে

মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হল সংসদ নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে রোকেয়া হলে পুনর্নির্বাচন ও প্রভোস্ট অধ্যাপক জিনাত হুদার পদত্যাগ দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন হলটির ছাত্রীরা।

বিক্ষোভকারীরা এ সময় বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন: ‘কারচুপির নির্বাচন মানি না, মানব না’, ‘প্রহসনের নির্বাচন মানি না, মানব না’, ‘অবিলম্বে প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগ করতে হবে’।

রোকেয়া হলের ছাত্রীদের অভিযোগ, হলে মোট ৯টি ব্যালটবাক্সে ভোটগ্রহণ হওয়ার কথা থাকলেও ছয়টি ব্যালটবাক্স তাদের দেখানো হয়। এ নিয়ে ছাত্রীদের মধ্যে সন্দেহ ছিল। পরে তারা জানতে পারেন, পাশের একটি কক্ষে ওই তিনটি ব্যালট বাক্স রাখা হয়েছে। ছাত্রীরা কক্ষটির দরজা ভেঙে ওই তিনটি ব্যালটবাক্স বের করে বাইরে নিয়ে আসেন। তারা ওই ব্যালটবাক্সগুলোর তালা ভেঙে দেখেন সেগুলোয় ব্যালট পেপার ভরা। তবে সেগুলোয় ভোট দেয়া ছিল না। শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, এত ব্যালট পেপার কেন? সেগুলো লুকিয়েই বা রাখা হবে কেন?

এ ঘটনায় বেলা সাড়ে ১১টার পর থেকে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়। কয়েক ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর বিকাল ৩টায় ফের ভোট শুরু হয়।