বউকে মারতে চুরি করা বিমান নিয়ে হামলা, বিধ্বস্ত!

বিমান চুরি করে স্ত্রীকে মারতে গিয়ে বিধ্বস্ত হয়ে মারা গেছেন এক পাইলট। আফ্রিকার বতসোয়ানায় নাটকীয় এ ঘটনায় একটি ভবনসহ ১৩টি গাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে। তবে সেখানে একটি অনুষ্ঠানে থাকা ৫০ জন ব্যক্তি বেঁচে গেছেন।

রুশ সংবাদমাধ্যম আরটি জানায়, দক্ষিণ বতসোয়ানার রাসেসায় একটি ফ্লাইং ক্লাবে ‘বেবি শাওয়ার’ অনুষ্ঠানে জড়ো হয়েছিলেন অর্ধশতাধিক মানুষ। কার্ল ভিলজোয়ান নামে দক্ষিণ আফ্রিকার একজন নাগরিক বিচক্রাফট কিং এয়ার বি২০০ বিমান নিয়ে ওই ভবনে আঘাত হানেন।

জানা গেছে, ফ্লাইং ক্লাবে ওই অনুষ্ঠানে তিনি আমন্ত্রিত ছিলেন না। তবুও সেখানে তিনি যাওয়ায় তার স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে তাকে সেখান থেকে চলে যেতে বলেন তার স্ত্রী। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি বিমান চুরি করে এ ঘটনা ঘটান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উদ্ধারকর্মীদের প্রচেষ্টায় আগুন নিভিয়ে ফেলা সম্ভব হয়েছে।

ফ্লাইং ক্লাবের একজন মুখপাত্র জানান, বিধ্বস্ত হওয়ার আগে ক্লাবের ওপরে একাধিকবার বিভিন্ন দিক থেকে একেবারে নিচ দিয়ে উড়ে যায় বিমানটি। তবে এটি বিধ্বস্ত হওয়ার আগে মানুষ দ্রুত সরে যাওয়ায় বড় ধরনের হতাহত হওয়া থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব হয়েছে।

রাজধানী গ্যাবোরোন গিয়ে একটি এয়ারপোর্ট থেকে বিমানটি চুরি করেন ভিলজোয়ান। তিনি কালাহারি এয়ার সার্ভিসের পাইলট ছিলেন।

বিমানটি বিধ্বস্ত হলে তিনি মারাত্মকভাবে আহত হন। তাকে দ্রুত উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে তিনি মারা যান।