ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে আবারও বাকশালের তোড়জোড়: ফখরুল

ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে সরকার আবারও বাকশাল কায়েমের তোড়জোড় করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, অনেক পানি গড়িয়েছে, ১৯৭৫ আর ২০১৯ সাল এক নয়। সুতরাং একদলীয় শাসনের যে স্বপ্ন আপনারা দেখছেন, রাজত্ব চিরস্থায়ী করবেন, এদেশের জনগণ কোনোদিনেই এ অবস্থা মেনে নেবে না।

সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ছবি: সংগৃহীত।
সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে প্রতিনিধি সভা ২০১৯’র এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

রাজনৈতিক দল হিসেবে আওয়ামী লীগের রাষ্ট্র পরিচালনা করার কথা কিন্তু প্রশাসন রাষ্ট্র পরিচালনা করছে এমন মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, তৎকালীন ৭২-৭৫ আওয়ামী লীগ সরকার যখন রাষ্ট্র পরিচালনায় ব্যর্থ হতে শুরু করলেন, যখন ভয়াবহ দুর্ভিক্ষ হলো তাদের দুর্নীতির কারণে, রাষ্ট্র পরিচালনা করতে ও রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রণ করতে সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ হলো, তখন জরুরি আইন চালুর মধ্য দিয়ে একদলীয় বাকশাল কায়েম করে। সেই বাকশালের পেছনে কোনো মহৎ উদ্দেশ্য ছিল না। সেই বাকশালের কারণ ছিল তাদের ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করবার, ক্ষমতাকে ধরে রাখবার।

এসময় দলের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে ফখরুল বলেন, আমাদের আর পেছনে তাকানোর সময় নেই, আমাদের সামনের দিকে এগোতে হবে। আমরা পরাজিত হব না। আমাদের দেশনেত্রীকে মুক্ত করে গণতন্ত্র মুক্ত করব। রাষ্ট্রকে গণতন্ত্র ব্যবস্থায় ফিরিয়ে নিয়ে আসা আমাদের দায়িত্ব। আমাদের রাষ্ট্রকে রক্ষা করতে হবে। গণতন্ত্রকে রক্ষা করতে হবে, স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বকে রক্ষা করতে হবে।