৫ মাস পর মামলা, ২১০দিন পর ময়না তদন্তের জন্যে লাশ উত্তোলন

২১০ দিন পর ময়নাতদন্তের জন্যে লাশ উত্তোলন। ছবি: প্রতীকী

কুমিল্লা জেলার মুরাদনগরে এ এস এম রেজাউল বারী চঞ্চল নামের এক প্রকৌশলীর লাশ ময়না তদন্তের জন্যে ২১০দিন পর কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে। চঞ্চলের মায়ের দায়ের করা হত্যা মামলার প্রেক্ষিতে লাশ উত্তোলন করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি)রায়হান মেহেবুব,পিবিআই পরিদর্শক তৌহিদুল ইসলাম,এসআই মিজানুর রহমান,তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই নজরুল ইসলামসহ এলাকার বিভিন্ন শ্রেণীর পেশার লোকজন।

প্রসঙ্গত, রেজাউল বারী চঞ্চলের বাবার মৃত্যুর পর গ্রামের বাড়ির পৈত্রীক জায়গা জমির খোঁজ নিতে এসে দেখেন চাচা আব্দুছ ছালাম ভুঁইয়া অধিকাংশ জমি বেদখল করে নিসে। এ বিরোধের জের ধরে চাচা এবং চাচাতো ভাইয়েরা বেদম মারধর করে আহত করে। আহতের ৭দিন পর তার মৃত্যু হলেও হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে প্রচার করা হয়। দীর্ঘ পাঁচ মাস পর এ নিয়ে এলাকায় জানাজানি হলে চঞ্চলের মা বাদী হয়ে ২২ জুলাই কুমিল্লার আমলী আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বাঙ্গরা বাজার থানা পুলিশ পহেলা আগস্ট এফআইআর হিশেবে গ্রহন করেন এবং মামলাটি পিবিআই তদন্ত শুরু করেন।