এবার নুসরাত হত্যাকান্ডের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভে উত্তাল কুমিল্লা

মাছুম কামাল:: ফেনীতে নিহত মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যাকান্ডের বিচারের দাবীতে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে এক মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় কুবির প্রধান ফটকের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচিতে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘স্বাধীনতার এত বছর পরও যদি ধর্ষণের বিচারের দাবীতে আমাদের রাস্তায় দাঁড়াতে হয়, তাহলে এই স্বাধীনতার মূল্য কি? সরকার যেমন মাদক ব্যবসায়ীদের ক্রসফায়ার করে দিয়েছে, তেমনি এদেরও ক্রসফায়ার দিলে এমন অনৈতিক কাজ বন্ধ হবে’।

এসময় শিক্ষার্থীরা আরও বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রত্যেকটা বাবা-মা আজ তাদের মেয়েদের নিয়ে শংকিত। কোথাও আজ মেয়েরা নিরাপদ নয়, আমার বোনেরা সর্বত্রই অনিরাপদ। রাস্তাঘাটে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সব জায়গায় তারা যৌন হয়রানির শিকার হোন। ধর্ষকের পরিচয় যেন শুধু ধর্ষকই হয়, আলেম বা হুজুর যেন না হয়।

এদিকে ফেনীর হত্যাকান্ড নিয়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজেও বৃহস্পতিবার বেলা ২টায় ‘হৃদয়ে বঙ্গবন্ধু মুরাল’ এর সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি হয়। এসময় ভিক্টোরিয়া কলেজের বিভিন্ন সংগঠন ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন এবং ফেনীর হত্যাকান্ড নিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন।

উল্লেখ্য, গত ৬ই এপ্রিল(শনিবার)ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসায় আলিম পরীক্ষা দিতে যান নুসরাত জাহান রাফি নামের ওই ছাত্রী। তখন উক্ত মাদরাসার এক ছাত্রী নুসরাতের বান্ধবী নিশাতকে ছাদের উপর কয়েকজন মারধর করছে-এমন সংবাদ দিলে নুসরাত ভবনের চারতালায় যান। পরবর্তীতে, সেখানে মুখোশপরা চার-পাঁচজন অজ্ঞাত ব্যক্তি ধর্ষক সিরাজ উদ দৌলার উপর করা মামলা তুলে না নেওয়ায় নুসরাতের গায়ে পেট্রোল মেরে আগুন ধরিয়ে চলে যান। শরীরের প্রায় ৮০ ভাগ পুড়ে যাওয়ায় পরবর্তীতে বুধবার (১০ এপ্রিল) রাতে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নুসরাত জাহান রাফী নামের ওই মাদ্রাসাছাত্রী।