বিএনপি নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করল দুর্বৃত্তরা

রোববার রাত ১১টার দিকে বগুড়া শহরের নিশিন্দারাস্থ হাউজিং এষ্টেট এলাকায় একটি শরীর চর্চা কেন্দ্র থেকে বেরিয়ে বাসার উদ্দেশে যাওয়ার পথে ৪-৫ জন অস্ত্রধারী বগুড়া সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও বিশিষ্ট পরিবহন ব্যবসায়ী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীনকে (৫৫) ধারালো অস্ত্রের আঘাতে খুন করে।

শাহীনকে এলোপাতাড়ি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এরপর স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নেয়।

সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানায় জরুরি বিভাগের ডাক্তার।

আরও পড়ুন: সুদানের অন্তর্বর্তী সামরিক পরিষদের প্রতি সৌদি আরবের সমর্থন

জেলা পুলিশের মিডিয়া বিভাগের প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তি জানান, শাহীনকে কারা কেন হত্যা করেছে তা জানা যায়নি। এ ঘটনায় কেউ আটকও হয়নি।

আরও পড়ুন: স্মার্টফোনের স্ক্রীনে দীর্ঘসময় কাটানো: কি বলছে গবেষণা

বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম ও সাধারন সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন বিএনপির নেতৃবৃন্দসহ রাত ১২টার দিকে শজিমেক হাসপাতালে ছুটে যান। এ সময় ভিপি সাইফুল হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে হত্যার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।