নেওয়াজ শরীফের বিরুদ্ধে মামলা, প্রসঙ্গ মুম্বাই হামলা

ছবি: ইন্টারনেট

[su_dropcap style=”light” size=”5″]পা[/su_dropcap]কিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে বিশ্বাসঘাতকতার মামলায় আদালতে উপস্থিত থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ সেই সাথে একজন বিশিষ্ট সাংবাদিককে গ্রেফতারের নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

এই মঙ্গলবার লাহোর আদালত থেকে পরবর্তী শুনানি (৮ই অক্টোবর) নাওয়াজ শারীফকে সাইরিল আলমেদিয়ার নেওয়া একটা সাক্ষাৎকারের উপর ভিত্তি করে দায়ের করা মামলায় আদালতে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেয়।  

[su_quote]মে মাসে প্রকাশিত সেই সাক্ষাৎকারে নাওয়াজ শারীফ ইঙ্গিত করেন, পাকিস্তানের সামরিক বাহিনী ও গোয়েন্দা বিভাগ মুম্বাই হামলার সাথে জড়িতদের সহায়তা করে। উল্লেখ, সেই হামলায় ১৬০ জনের বেশি মানুষ মারা গিয়েছিল।[/su_quote]

পাকিস্তানের একটি প্রধান দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শারীফ বলেন, ‘সামরিক বাহিনী সক্রিয় আছে। আমাদের কি উচিৎ হামলাকারীদের বর্ডার পেরিয়ে মুম্বাইয়ে ১৫০ জন্য মানুষ হত্যার সুযোগ করে দেওয়া, তাহলে সামরিক বাহিনীকে নিষ্ক্রিয় বলা হয়ে যায়? আমাকে ব্যাখ্যা করুন ব্যাপারটা। আমরা কেন করতে পারি না?’

এই সাক্ষাৎকার সামনে আসলে ক্ষমতাসীন সরকারের সাথে সামরিক বাহিনীর পারস্পরিক যে বিরোধ চলছে সেখানে নতুন সমস্যা যুক্ত হয়। শারীফকে প্রধানমন্ত্রীর পোস্ট থেকে সুপ্রিম কোর্ট পদচ্যুত করে।   

এ’বছর জুলাই মাসে দুর্নীতির মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। গত সপ্তাহে তিনি জামিনে ছাড়া পান।

 

সূত্র: আলজাজিরা