আ’লীগ নেতা অপহৃত, জঙ্গলে জঙ্গলে চলছে তল্লাশি

শুক্রবার সকাল থেকে বান্দরবানে অপহৃত আওয়ামী লীগ নেতা চ থোয়াই মং মারমার খোঁজে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে এবার স্থানীয় লোকজন উদ্ধার অভিযানে নেমেছে। বান্দরবানের কুহালং, রাজবিলা, সদর, নোয়াপতংসহ বিভিন্ন এলাকার বেশ কয়েকটি পাড়ার সহস্রাধিক লোকজন দশটিরও বেশি দলে বিভক্ত হয়ে লাঠিসোটা নিয়ে সম্ভাব্য এলাকাগুলোতে তল্লাশি চালিয়েছে।

শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত তল্লাশি অভিযানে অপহৃত আওয়ামী লীগ নেতা চ থোয়াই মং মারমার কোনো খোঁজ পাওয়া না গেলেও কুহালং ইউনিয়নের জর্ডান পাড়ার কাছে একটি জঙ্গলে মানুষের রক্ত দেখতে পেয়েছেন স্থানীয়রা। একটি স্থানে রক্তগুলো জমাট বেঁধে ছিল। রক্তের দাগ দেখে স্থানীয়দের মধ্যে সন্দেহ দানা বাঁধছে। চ থোয়াই মং মারমাকে সন্ত্রাসীরা হত্যা করেছে কিনা।

বান্দরবান সদর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, বেশ কয়েকটি পাড়ার সহস্রাধিক লোকজন সকাল থেকে বিভিন্ন জঙ্গলে কয়েকটি ভাগে ভাগ হয়ে তল্লাশি অভিযানে নামে। তাদেরকে পুলিশ সদস্যরা সহায়তা দিয়েছে। তবে একটি স্থানে কিছু রক্তের দাগ ছাড়া অপহৃত নেতার এখনো কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। রক্তগুলো মানুষের হলেও এটি অপহৃত চ থোয়াই মং এর কি না তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। তবে রক্তের দাগ দেখার পর পুলিশ ও স্থানীয়রা আরো বিস্তীর্ণ এলাকায় তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা পাইহ্লা অং মারমা জানিয়েছেন, সম্ভাব্য স্থানগুলো ঘিরে স্থানীয়রা ব্যাপকভাবে তল্লাশি চালাচ্ছে। যেসব এলাকা দিয়ে সন্ত্রাসীরা অপহৃত নেতাকে নিয়ে গেছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে সেসব জায়গায় তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

উল্লেখ্য, বুধবার রাতে উজি মুখপাড়া এলাকার একটি খামার বাড়ি থেকে পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বান্দরবান পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর চ থোয়াই মং মারমাকে সন্ত্রাসীরা অপহরণ করে।