কিডনি সুস্থ রাখতে মেনে চলুন এসব নিয়ম

আমাদের জীবনযাত্রা ও পরিবর্তিত খাদ্যাভ্যাসের ফলে আমাদের প্রায়ই সুশৃঙ্খল জীবন কাটানো সম্ভব হয়না। ফলে শরীরের অভ্যন্তরে ক্ষতি হতে থাকে নিরন্তর। এমনকি কিডনির মতো গুরুত্বপূর্ণ   অঙ্গও প্রতি দিনের বেশ কিছু সাধারণ ভুলে ক্ষতিগ্রস্থ হয় নানা ভাবে। যা পরবর্তীকালে কঠিন রোগের আকার নেয়। ফলে প্রথম থেকেই নিয়ম মেনে চলা খুব দরকার।

ভারতের কিডনি বিশেষজ্ঞ অভিজিৎ তরফদারের মতে, আমাদের প্রতিদিনের কিছু কাজ ক্ষতি করে কিডনির।

আসুন জেনে নেই সেসব ভুল এবং এড়িয়ে চলার চেষ্টা করি।

  • কিডনিকে ভাল রাখতে পানি খুব প্রয়োজন। শরীর অনুযায়ী পানি কতটা প্রয়োজন, তার পরামর্শ নিন চিকিৎসকের কাছে। সেই অনুযায়ী প্রতিদিন পানি খান। প্রতি দিন পর্যাপ্ত জল না খেলে কিডনির উপর চাপ পড়ে এবং কিডনি তার সাধারণ কার্যক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। শীতকালেও পানি খাওয়ার পরিমাণ কমাবেন না। পিপাসা না থাকলেও সময়মতো পানি খাওয়ার অভ্যাস করুন।
  • সামান্য ব্যথা হলেই পেইন কিলার খাওয়ার অভ্যাস আজই ত্যাগ করুন। কিডনির কোষের অতিরিক্ত ক্ষতি করে পেইন কিলার। একান্তই অসহ্য ব্যথা না হলে পেইন কিলার খাওয়া উচিত নয়।
  • কিডনি অতিরিক্ত সোডিয়াম শরীর থেকে বের করতে পারে না। ফলে বাড়তি লবণের সোডিয়াম রয়ে যায় কিডনিতেই। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হয় কিডনি। তাই অতিরিক্ত লবণ খাওয়া ত্যাগ করুন।
  • অনেকে বাইরে বের হলে আটকে রাখেন প্রস্রাব। এমন অভ্যাস কিন্তু শরীরের জন্য খুব ক্ষতিকর। অনেকক্ষণ প্রস্রাব চেপে রাখলে তা কিডনিতে চাপ তো ফেলেই, এমনকি, চিকিৎসকদের মতে, এমন অভ্যাস দীর্ঘ দিন ধরে বজায় রাখলে অচিরেই নষ্ট হতে পারে কিডনি।
  • চর্বি কিডনির জন্য খুব ক্ষতিকর। মাংসের ফাইবারও পরিমাণে বেশি হলে তা কিডনির উপর চাপ ফেলে। তাই ঘন ঘন মাংস খাওয়ার প্রবণতা থাকলে তা কমান, খেলেও খুব পরিমাণ মেপে খান।