বেকারদের দক্ষতা উন্নয়ন ও অধিক কর্মসংস্থানে বরাদ্দ ২০০ কোটি টাকা

আগামী ২০১৯-২০ অর্থ বছরে শ্রমিকের দক্ষতা উন্নয়নে প্রশিক্ষণ ও যুবকদের কর্মসংস্থান কার্যক্রমের জন্য ২০০ কোটি টাকা বিশেষ বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। এরমধ্যে যুবকদের ব্যবসার উদ্যোগ সৃষ্টির মাধ্যমে অধিক কর্মসংস্থানের জন্য ১০০ কোটি ও প্রশিক্ষণের জন্য ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম.মুস্তফা কামাল একথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ২০১৯-২০ অর্থ বছরে শ্রম ও কর্ম সংস্থান মন্ত্রণালয়ে ৩১৩ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়। এছাড়া দক্ষ শ্রম শক্তি সৃষ্টিতে ৪৯৮টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং ১১১টি প্রাতিষ্ঠানিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ১৫ লাখ মানুষকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। নতুন শ্রম বাজার সৃষ্টির লক্ষ্যে ৫৩ টি দেশে নতুন শ্রম বাজার সম্পর্কে ধারণা ও সুপারিশ পাওয়া গেছে। ২০৩০ সালের মধ্যে তিন কোটি মানুষের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া শ্রমিকদের সার্বিক সুরক্ষায় আইন প্রণয়নসহ বিভিন্ন কল্যাণকর তহবিল থেকে ৮৫ কোটি টাকার বিশেষ আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে বলে বাজেট বক্তব্যে মন্ত্রী উল্লেখ করেন। এছাড়া প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা উন্নয়নে সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করায় দেশে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পাবে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, তৈরি পোশাক খাতের কর্ম পরিবেশ বৃদ্ধি পাওয়ায় অধিক কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

৪ হাজার ৮০৮ টি পোশাক কারখানার প্রয়োজনীয় তথ্যসহ ডাটাবেজ তৈরি করা হয়ছে। আরো ২৭ হাজার বিভিন্ন কারখানার ডাটাবেজ তৈরি করা হবে। এছাড়া শ্রমিকদের নিরাপত্তায় ২ হাজার ২৬২টি সেফটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।