ট্রাম্পকে অকর্মা ও অদক্ষ বলায় পদত্যাগে বাধ্য হলেন বিট্রিশ রাষ্ট্রদূত

আজ (বুধবার) মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অকর্মা ও অদক্ষ বলা আমেরিকায় নিযুক্ত সেই যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রদূত কিম ডেরক পদত্যাগ করেছেন।

যদিও পদত্যাগী রাষ্ট্রদূত ডেরক বলেছেন তিনি নিজের মত করে দায়িত্ব পালন করতে পারছেন না। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের সমালোচনা করে পাঠানো ইমেইল ফাঁস এবং তা নিয়ে শুরু হওয়া বিতর্কের মুখে তিনি পদত্যাগ করলেন।

পদত্যাগপত্রে ডেরক বলেন, ‘ওয়াশিংটনের দূতাবাস থেকে সরকারি নথিপত্র ফাঁস হয়ে যাওয়ার পর আমার পদ ঘিরে এবং রাষ্ট্রদূত হিসেবে আমার বাকি মেয়াদ নিয়ে নানা জল্পনা চলছে।’ 

‘আমি এ জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটাতে চাই। বর্তমানে যে পরিস্থিতি বিরাজ করছে তাতে আমি যেভাবে আমার দায়িত্ব পালন করতে চাই সেটা আমার জন্য অসম্ভব হয়ে পড়েছে।’

উল্লেখ্য, সম্প্রতি লন্ডনে পররাষ্ট্র দপ্তরে পাঠানো ইমেইলে ডেরক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার প্রাশাসনকে ‘অকর্মা’ ‘অযোগ্য’ এবং ‘তালগোল পাকানো’ বলে উল্লেখ করেছিলেন।

গত রোববার ডেইলি মেইল পত্রিকায় ডেরকের ওই ইমেইলগুলো প্রকাশ পাওয়ার পরে ডোনাল্ড ট্রাম্প এরপর বলেছেন, তিনি ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত ডেরকের সঙ্গে কাজ করবেন না। অনেকেই বলছেন, ডেরক সত্যিই ট্রাম্পকে চিনতে পেরেছেন।