ভারতে ফের নির্যাতনের শিকার মুসলমানেরা, ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি না দেয়ায় মারধর

ভারতের বিজেপিশাসিত উত্তর প্রদেশের উন্নাওয়ে গত বৃহস্পতিবারের ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি না দেয়ায় দুর্বৃত্তদের মা রধরে বেশ কয়েকজন মাদ্রাসা ছাত্র আ হত হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ বলছেন, হামলাকারীরা বজরং দলের সঙ্গে যুক্ত। তারা কয়েকজনের সাইকেলও ভেঙে দিয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় এফআইআর দায়ের হয়েছে। 

আরও পড়ুন: ভারতীয় পরীক্ষায় ব্যার্থ ইসরাইলি ট্যাংক, পাঁচশ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি বাতিল

মাওলানা নইম মিসবাহী জানান, ১২/১৪ বছর বয়সী ছাত্ররা ক্রিকেট খেলার সময় কিছু লোক তাদেরকে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিতে বলে। কিন্তু তারা ‘জয় শ্রীরাম’ না বলায় দুর্বৃত্তরা তাদেরকে মা রধর করে এবং তাদের উপরে পাথর নিক্ষেপ করে।

উন্নাও শহরের পুলিশ কর্মকর্তা উমেশ চন্দ্র ত্যাগি বলেন, মাদ্রাসার তিন শিশু দুই গোষ্ঠীর সঙ্গে সং ঘর্ষে আ হত হয়েছে। ওই ঘটনার তদন্ত চলছে। এ ব্যাপারে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদেরও গ্রেফতার করা হবে।

আরও পড়ুন: এই সংসদ হচ্ছে গরীবুল্লা: মেনন

এ ব্যাপারে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের পশ্চিমবঙ্গের সাধারণ সম্পাদক মুফতি আব্দুস সালাম রেডিও তেহরানকে বলেন, ‘এ ধরণের ধর্মীয় বিভাজন, ধর্মীয় স্লোগান মানুষের উপরে চাপিয়ে দেয়া, মানুষকে বিব্রত করা, মানুষের মানহানি, জী বনহানি পর্যন্ত ঘটে যাচ্ছে এসব বিষয়ে আমরা খুব উদ্বিগ্ন!’

‘সংখ্যালঘু মানুষ, দুর্বল মানুষ যারাই হোক তাদের নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রীয় সরকারের। এই মর্মে তাদের ব্যর্থতা, তাদের নীরবতা দেশের জন্য খুব ক্ষতি। এটা খুব বিপদের ইঙ্গিত!’