ইরানের হুমকির পর পারস্য উপসাগরে নিরাপত্তা বাড়াচ্ছে ব্রিটেন

ইরানের হুমকির পর নিজ দেশের তেলের ট্যাংকারের নিরাপত্তা বাড়াতে পারস্য উপসাগরে আরও একটি যুদ্ধজাহাজ পাঠিয়েছে ব্রিটেন।

আরো পড়ুন – যেকোনো মূল্যে রংপুরেই এরশাদের দাফন: ঘোষণা উত্তরবঙ্গ জাতীয় পার্টির

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে দেয়া এক ভাষণে ইরানে হামলার হুমকি দেয়ার পর গত ১২ জুলাই দ্বিতীয় ওই যুদ্ধজাহাজটি পাঠানো হয়। খবর ডেইলি হুরিয়েতের।

৪ জুলাই ইরানের একটি তেলবাহী ট্যাংকার জিব্রাল্টার প্রণালিতে যুক্তরাজ্যের নৌবাহিনী আটক করলে দুদেশের মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়।

তারই ধারাবাহিকতায় হরমুজ প্রণালিতে গত ৯ জুলাই একটি ব্রিটিশ জাহাজকে ধাওয়া করে ইরানের তিনটি গানবোট।

ইরান অবশ্য এ ঘটনা অস্বীকার করেছে। এর পর থেকেই পারস্য উপসাগরে শক্তি বৃদ্ধির পরিকল্পনা করে ব্রিটেন।

ইরানের তেল ট্যাংকারটি আটক করার পর থেকে ইরান ও ব্রিটেনের মধ্যে কূটনৈতিক অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে।

আরো পড়ুন – নারী কংগ্রেসদের অবমাননা করে যুক্তরাষ্ট্র থেকে চলে যেতে বললেন ট্রাম্প

ব্রিটেন দাবি করছে- অপরিশোধিত তেল নিয়ে সিরিয়ার উদ্দেশে যাওয়ার সময় জাহাজটি আটক করা হয়।

তবে ইরান বলছে- জাহাজটি সিরিয়ায় যাচ্ছিল না এবং সিরিয়ার কোনো বন্দরেই এ ধরনের জাহাজ ভিড়তে পারে না।