মিন্নির গ্রে`প্তার, রি`মান্ড ও জ`বানবন্দির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আবেদন

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ড. ইউনুছ আলী আকন্দ রিফাত শরীফ হ`ত্যা মা`মলার প্রধান সাক্ষী ও পরে আ`সামি নি`হতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে গ্রেপ্তার, রিমান্ডে নেওয়া এবং ১৬৪ ধারায় মিন্নির দেওয়া স্বী`কারোক্তিমূলক জ`বানবন্দি নেওয়ার বৈ`ধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে একটি আবেদন করা হয়েছে। 

পাশাপাশি এই মা`মলার প্রধান আ`সামি নয়ন বন্ডকে ক্র`সফায়ারে হ`ত্যার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তও চাওয়া হয়েছে এই আবেদনে। এ আবেদনে মা`মলাটি পিবিআই অথবা সিআইডকে দিয়ে তদন্তের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: দেশব্যাপী ছে`লেধরা সন্দেহে গ্রেফ`তার ৭০ শতাংশই বিএনপি-জামায়াতের: তথ্যমন্ত্রী

বিচারপতি এফআরএম নামজুল আহাসান বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ আবেদন করা হয়েছে। আবেদনে স্বরাষ্ট্র ও আইন সচিব, পুলিশের আইজি, পুলিশের ডিআইজি (বরিশাল), বরগুণার এসপিসহ সাতজনকে বিবাদী করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে স`ন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে কু`পিয়ে রিফাত শরীফকে হ`ত্যা করে। এমন অবস্থায় ১৬ জুলাই রাতে মিন্নিকে গ্রে`প্তার করে পরদিন তাকে ৫ দিনের রি`মান্ডে নেয় পুলিশ।

আরও পড়ুন: প্রিয়া সাহার বক্তব্য ড. কামাল হোসেন গংদের প্ররোচনায় কি-না দেখতে হবে: নাসিম

রি`মান্ড শেষ হওয়ার আগেই গত ১৯ জুলাই ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বী`কারোক্তিমূলক জ`বানবন্দী দেয় মিন্নি। এরপর তাকে কা`রাগারে পাঠানো হয়। 

আগামী ৩০ জুলাই বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে মিন্নির জা`মিন আবেদনের ওপর শুনানির দিন ধার্য রয়েছে।