শীঘ্রই মহাকাশে মানুষ পাঠাতে চলেছে পাকিস্তান

বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী জানিয়েছেন, মহাকাশে মানুষ পাঠাতে যাচ্ছে দেশটি। যদিও পাকিস্তানের নিজস্ব কোন রকেট উৎক্ষেপণ কেন্দ্র নেই।

পাকিস্তানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী চৌধুরী ফাওয়াদ হুসেইন বলেন, আমাদের ইতিহাসে এটা হবে সবচেয়ে বড় মহাকাশ অভিযান।

আরও পড়ুন: মিন্নির গ্রে`প্তার, রি`মান্ড ও জ`বানবন্দির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আবেদন

ফাওয়াদ চৌধুরী জানান, কে মহাকাশে যাবেন তা নির্বাচন করবে বিমান বাহিনী। তারা ৫০ জন পাইলটকে বেছে নেবে। তারপর সেই ৫০ জন থেকে ২৫ জনকে বাছাই করা হবে। সেখান থেকে বেছে নেওয়া হবে ১০ জনকে। এই ১০ জনকে বিশেষভাবে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। তারপর তাদের মধ্যে সেরাকে বেছে নেওয়া হবে মহাকাশে পাড়ি দেওয়ার জন্য। ২০২০ সালে শুরু হবে এই নির্বাচন প্রক্রিয়া। 

২০২২ সালে মহাকাশে পাড়ি দেবেন সেই ব্যক্তি। প্রথম পাকিস্তানি হিসাবে মহাকাশে যাওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করবেন তিনি।

কিন্তু মহাকাশে পাড়ি দিতে গেলে তো একটি উৎক্ষেপণ কেন্দ্র লাগে। এ নিয়ে চীনের সঙ্গে কথা হয়েছে পাকিস্তানের। চীনের কাছ থেকে প্রযুক্তিও নিতে হবে পাকিস্তানকে। 

তারপর সব ঠিকঠাক হয়ে গেলে ২০২২ সালে মহাকাশযান উৎক্ষেপণ করে দেবে চীন।