ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সভাপতিসহ শীর্ষ ৫ নেতাকে হ`ত্যার হু`মকি

নিজস্ব প্রতিবেদক:: আজ ২৬ জুলাই ডাকযোগে পাঠানো এক চিঠিতে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি সহ ৫ জন কে হ`ত্যার হু`মকি দেয়া হয়েছে।  চিঠিতে কেন্দ্রীয় সভাপতি মেহেদি হাসান নোবেল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সভাপতি নজির অামিন চৌধুরী জয়, ঢাকা মহানগর সংসদের সভাপতি জহর লাল রায় এবং ঢাকা জেলা সংসদের অারিফুল ইসলাম সাব্বিরের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

চিঠিতে ছাত্র ইউনিয়নের এই পাঁচ ছাত্রনেতার নাম উল্লেখ করে ইংরেজী তে লেখা অাছে “জনাব, শ`ত্রুপক্ষ না বন্ধু বলছি। ডিইউ/জিইউ ক্যাম্পাস ছেড়ে দাও, নাহলে তোমাদের মে`রে ফেলা হবে। আমরা ডিইউ/জিইউ ক্যাম্পাসে  ইসলাম প্রতিষ্ঠা করবো”।

তবে চিঠিতে কোন মৌ`লবাদী বা স`ন্ত্রাসী গোষ্ঠীর নাম উল্লেখ ছিলো না। ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল জানান, চিঠিতে ভোলার চরফ্যাশন পোস্ট অফিসের সিল দেয়া আছে। তবে প্রেরকের ঠিকানায় ভোলার বোরহান উদ্দীন উপজেলার আব্দুল হালিমের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। 

তিনি অভিযোগ করেন, ‘সা`ম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান নেয়ায় ছাত্র ইউনিয়নের নেতারা ধ`র্মীয় জ`ঙ্গিদের টার্গেট হয়ে থাকতে পারে। 

পরবর্তীতে, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল এবং সাধারণ সম্পাদক অনিক রায় এক যৌথ বিবৃতিতে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন। 

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, শিক্ষার গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত, অধিকার আদায়সহ সকল ছাত্র কল্যাণমূলক সংগ্রামে ছাত্র ইউনিয়ন তার ইতিহাস অর্পিত দায়িত্ব পালন করে যাবে। পূর্বের ন্যায় সকল হুমকি উপেক্ষা করে শিক্ষাঙ্গনে সা`ম্রাজ্যবাদ, মৌ`লবাদের বিরুদ্ধে আ`ন্দোলন সংগ্রা`ম আমরা অব্যাহত রাখবো।

ঘটনার প্রেক্ষিতে আগামীকাল ২৭ জুলাই, শনিবার শাহবাগ থা|নায় অভিযোগ দায়ের করবে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন।