সারাদেশে ছড়িয়ে পড়েছে ডেঙ্গুর ভয়াবহতা

ইতিমধ্যে রাজধানীর বাইরে দেশের বেশির ভাগ জেলাতেই ছড়িয়ে পড়েছে ডেঙ্গুর ভয়াবহতা। সরকারি হিসাবেই ২৩ জেলায় ডেঙ্গু আক্রান্তের তথ্য রয়েছে। বেসরকারি হিসাবে এ সংখ্যা আরও বেশি। 

গত ২৪ ঘণ্টায় ৮২৪ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। সরকারি হিসাবে বর্তমানে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ২৯২১ জন ডেঙ্গু রোগী। এর মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) ৫৪০ জন, মিটফোর্ড হাসপাতালে ২২৪, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ৯৪, সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২১৭, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ২০৭, বারডেমে ৩৯ জন।

আরও পড়ুন: হরমুজ প্রণালী অতিক্রম করে যু`দ্ধের উস্কানি দিল দ্বিতীয় ব্রিটিশ যু`দ্ধজাহাজ

ঢাকার বাইরে গাজীপুরে ৭৩ জন, মুন্সীগঞ্জে ৭, কিশোরগঞ্জে ৫৪, নারায়ণগঞ্জে ১৩, চট্টগ্রামে ৫৭, ফেনীতে ৫১, কুমিল্লায় ১, চাঁদপুরে ৩৭, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১০, লক্ষ্মীপুরে ৮, নোয়াখালীতে ৯, কক্সবাজারে ৬ জন ভর্তি আছেন।

খুলনায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩১ জন, কুষ্টিয়ায় ৩২, যশোরে ২২, ঝিনাইদহে ১১, বগুড়ায় ৬০, পাবনায় ২৯, সিরাজগঞ্জে ৮, নওগাঁয় ২, রাজশহীতে ৩৮, বরিশালে ৩৫ এবং সিলেটে ১৩ জন।

এছাড়া, বগুড়ায় রোববার বিকাল পর্যন্ত ডেঙ্গুতে ৫৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। রংপুরে এ পর্যন্ত মোট ২৯ জন ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। সিলেট বিভাগজুড়ে ১৭ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত ৭ জন রোগী চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। 

আরও পড়ুন: পুত্রবধূর অ`ত্যাচারে আত্মহ`ত্যা করতে নদীতে ঝাঁপ দিলেন ৯২ বছরের বৃদ্ধা

চুয়াডাঙ্গায় ৩ জন, শেরপুরে ৬ জন, দিনাজপুরে ৫ জন, লালমনিরহাটে ১ জন, বরিশালে ২৫ জন, কিশোরগঞ্জে ৬২ জন, কুমিল্লায় ২৭ জন, পাবনায় ২৯ জন, গাজীপুরে ২০ হাসপাতলে ভর্তি রয়েছেন। বরিশালের গৌরনদীতে ১ জন, নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় ২ জন আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলায় ডেঙ্গু আক্রান্ত একজনের মৃ`ত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে আসন্ন ঈদুল আজহায় ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্তদের গ্রামের বাড়িতে না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। তিনি বলেন, ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখতে হয়। অনেক গ্রামে প্রশিক্ষিত চিকিৎসক থাকে না।