রাষ্ট্রায়ত্ত চার ব্যাংককে আর কোনও মূলধন দেওয়া হবে না: অর্থমন্ত্রী

আগামী রবিবার অর্থ মন্ত্রণালয়ে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোতে নতুন নিয়োগ পাওয়া ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের (এমডি) কর্মপরিকল্পনা জমা দেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আহম মুস্তফা কামাল। এসময় তিনি জানান, এ ব্যাংকগুলোকে সরকারের পক্ষ থেকে নতুন করে আর কোনও মূলধন দেওয়া হবে না।

অর্থমন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত চার ব্যাংক, সোনালী, রূপালী, জনতা ও অগ্রণী ব্যাংককে সরকারের পক্ষ থেকে নতুন করে আর কোনও মূলধন দেওয়া হবে না। তাদের মুনাফা করেই বেতন নিতে হবে। আর মুনাফার সর্বনিম্ন হার হতে হবে ১৫ শতাংশ। আগে প্রতি অর্থবছরে ঘাটতি পূরণের জন্য রাষ্ট্রায়ত্ত এ চার ব্যাংককে অর্থ দিতো সরকার।

রবিবার (২৫ আগস্ট) রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ও বিশেষায়িত ব্যাংকগুলোর চেয়ারম্যান ও সিইও/ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকের শুরুতে এসব কথা বলেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা চারটি ব্যাংককে আমন্ত্রণ জানিয়েছি। তারা অনেক বড়। আমাদের বৃহত্তর চারটি ব্যাংক তারা। তাদের যে অবস্থান ব্যাংক খাতে, এই চারটি ব্যাংক চাইলেই সার্বিকভাবে আমাদের ব্যাংক খাতকে বেগবান রাখতে পারে।’
মুস্তফা কামাল বলেন, এক্সিট প্ল্যান বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া আটকে যাওয়ার কারণে ব্যাংকগুলোতে খেলাপি ঋণ কমানো যায়নি। আমি বলেছিলাম, ব্যাংকগুলোর খোলাপি ঋণের পরিমাণ এক টাকাও বাড়বে না। কিন্তু এ বিষয়টি উচ্চ আদালতে বিচারাধীন থাকায় তা বাস্তবায়ন করা যায়নি।

তিনি আরও বলেন, এ চার ব্যাংককে অর্থ আয় করতে হবে। এ দেশের মানুষকে দেখাশোনা করেই তাদের বেতন নিতে হবে।

তিনি এও জানান, চলতি অর্থবছরের বাজেটে ব্যাংকগুলোর জন্য কোনও বরাদ্দ নাই।