বাংলাদেশ জাতীয় গ্রন্থাগারের নতুন প্রকাশনা সংগ্রহদল এখন চট্টগ্রামে

বিশেষ প্রতিনিধি:: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়াধীন ঢাকার শেরেবাংলা নগরস্থ বাংলাদেশ জাতীয় গ্রন্থাগার (আরকাইভস ও গ্রন্থাগার অধিদপ্তর অন্তর্ভুক্ত) কর্তৃক দেশের বিদ্যমান কপিরাইট আইনের লিগ্যাল ডিপোজিট ক্ষমতাবলে ২০১৮ ও ২০১৯ সালে প্রকাশিত পুস্তক, পত্রপত্রিকা ও সাময়িকী দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে সংগ্রহের অংশ হিসেবে ২৮/০৮/২০১৯ হতে ৩০/০৮/২০১৯ পর্যন্ত চট্টগ্রাম জেলা ভ্রমণ করে নতুন প্রকাশনা সংগ্রহের উদ্দেশ্যে অবস্থান করবেন।

উল্লেখ্য যে, কপিরাইট আইন-২০০৫ (সংশোধিত) মোতাবেক বাংলাদেশে প্রকাশিত নতুন বই, পত্রপত্রিকা ও সাময়িকী প্রতিটির ০১(এক) কপি (বই প্রকাশের ৬০ দিনের মধ্যে এবং পত্রপত্রিকা প্রকাশ পাওয়া মাত্রই) জাতীয় গ্রন্থাগারে জমাদানের বিধান রয়েছে। জমাপ্রাপ্ত প্রকাশনা ছাড়াও অবশিষ্ট নতুন প্রকাশনা সারাদেশ থেকে সংগ্রহ করা, সেগুলোর তথ্যসহযোগে বাংলাদেশ জাতীয় গ্রন্থপঞ্জি প্রণয়ন, প্রকাশ ও বিতরণ করা এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য কেন্দ্রীয়ভাবে সংরক্ষণের জাতীয় গ্রন্থাগারই একমাত্র দায়িত্বপ্রাপ্ত সরকারি প্রতিষ্ঠান।

বাংলাদেশ জাতীয় গ্রন্থাগারের উক্ত প্রকাশনা সংগ্রহদলকে নতুন প্রকাশনা সংগ্রহপূর্বক সার্বিক সহযোগিতা দানের জন্য প্রকাশনাসংস্থার স্বত্বাধিকারী/প্রকাশক/লেখক/গবেষক/গ্রন্থপ্রেমিক/গ্রন্থাগারিক/শুভানুধ্যায়ীসহ সকলকে সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। যোগাযোগ: জনাব মোঃ নাজমুস শাহাদৎ, সহকারী পরিচালক (গ্রন্থাগার) (০১৬৮৭৩৪৯০২১)

ইতিমধ্যেই প্রতিনিধি দল চট্টগ্রামে অবস্থান করছেন। অবস্থান উপলক্ষে ২৮ আগস্ট রাত ৮টায় জাতীয় আর্কাইভস ও গ্রন্থাগার প্রতিনিধি দল বলাকা প্রকাশনের কার্যালয়ে এক মত বিনিময় সভায় মিলিত হন। প্রতিনিধি দলের সিদ্ধান্ত মতে চট্টগ্রাম অঞ্চলের বই সংগ্রহ করার জন্য আগামী কাল ২৯ আগস্ট সকাল ১০টা থেকে সারাদিন চট্টগ্রামের সকল প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান থেকে ২০১৮ ও ২০১৯ সালে বই সংগ্রহ করা হবে। সংশ্লিষ্ট প্রকাশককে উক্ত সময়ের মধ্যে বলাকা প্রকাশনে এসে যোগযোগ করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ রকরেছে।
ঢাকা থেকে আগত প্রতিনিধি দলের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যথাক্রমে সহকারি পরিচালক মো: নাজমুল শাহাদত, গ্রন্থাগারিক সামিমা ইয়াসমিন, অফিস সহায়ক মো: কামাল হোসেন, বলাকা প্রকাশনের সত্বাধিকারী গবেষক জামাল উদ্দিন ও তৃতীয় চোখ প্রকাশনীর সত্বাধিকারী আলী প্রয়াস।