মোদি সরকারের হাতে মুসলমানদের জাতিগত নির্মূলের চেষ্টা বিশ্বের জন্য অশনিসংকেত: ইমরান খান

আসামের জাতীয় নাগরিকত্ব তালিকা (এনআরসি) থেকে ১৯ লাখেরও বেশি নাগরিক বাদ পড়ার প্রতিক্রিয়ায় মোদি সরকারের হাতে মুসলমানদের জাতিগত নির্মূলের খবর বিশ্বের জন্য অশনিসংকেত বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

টুইটারে দেয়া বার্তায় ইমরান খান বলেন, মুসলমানদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করতেই আসামের নাগরিক তালিকা করা হয়েছে। মোদি সরকার কীভাবে মুসলিম সম্প্রদায়কে জাতিগতভাবে নির্মূল করতে চাইছে তা ভারত এবং আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে উঠে আসছে।

কাশ্মীরে মোদি সরকারের অবৈধ দখলদারিত্ব মুসলমানদের বিরুদ্ধে বৃহত্তর কৌশলের একটি অংশ বলেও মন্তব্য করেন পাক প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে ভারতের কাশ্মীর ও আসামে গণহত্যার প্রাথমিক ১০টি ধাপ বা লক্ষণের কয়েকটি ইতিমধ্যে স্পষ্ট হয়েছে বলে সতর্ক করেছিল গণহত্যা প্রতিকার বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংস্থা জেনোসাইড ওয়াচ।

প্রসঙ্গত, শনিবার আসামের চূড়ান্ত জাতীয় নাগরিকত্ব তালিকা (এনআরসি) থেকে বাদ পড়েছেন ১৯ লাখেরও বেশি মানুষ। তালিকা থেকে বাদ পড়ায় রাজ্যটিতে ১৯ লাখ লোক রাষ্ট্রহীন হয়ে পড়ার শঙ্কায় রয়েছেন। ফরেনার্স ট্রাইব্যুনালে আগামী ১২০ দিনের মধ্যে নাগরিকত্ব প্রমাণ করতে না পারলে তাদের ঠাঁই হবে শরণার্থীশিবিরে।