বিচারক চূড়ান্ত হয়েছে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের, শুরু হচ্ছে অডিশন

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’-এর এবারের আসরের বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী, চিত্রনায়ক ফেরদৌস এবং সৌন্দর্য বিশেষজ্ঞ ফারনাজ আলম। ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে এর অডিশন।

আজ ১৪ সেপ্টেম্বর এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিচারকদের পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়। এসময় অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে বিস্তারিত জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আয়োজক অমিকন এন্টারটেইনমেন্টের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান, এক্সপার্ট প্রোভাইডারসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অপু খন্দকার, এক্সপোজারের সিওও সজীব রশীদ।

আয়োজক প্রতিষ্ঠান অমিকন এন্টারটেইনমেন্ট জানায়, বাংলাদেশের মেয়েদের সৌন্দর্য ও বুদ্ধির সম্মিলন ঘটিয়ে বিশ্ব জয় করার লক্ষ্যে কাজ করছে তারা।

নায়ক ফেরদৌস বলেন, ‘রিয়েলিটি-শোগুলোকে আমি খুব পজিটিভভাবে দেখি। আমার মনে হয় এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি রিয়েলিটি শো’র বিচারক ছিলাম আমি। বিষয়টা আমি ভীষণ উপভোগ করি।’

মৌসুমী বলেন, ‘এবারের এই অনুষ্ঠানে মূল বিচারকের আসনে আমি থাকছি। ভালো লাগছে এমন আয়োজনের সঙ্গে থাকতে পেরে।’

দ্বিতীয়বারের মতো শুরু হয়েছে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতা। গত ৮ সেপ্টেম্বর নিবন্ধন প্রক্রিয়া শেষে শুরু হয়েছে অডিশন। এখান থেকে নির্বাচিত দেশ সেরা প্রতিযোগী মিস ওয়ার্ল্ডের আসরে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন। আর এই পর্বগুলো শিগগিরই সম্প্রচার হবে এটিএন বাংলায়।

লন্ডনে এবার বসছে মিস ওয়ার্ল্ডের ৬৯তম আসর। আগামী ১৪ ডিসেম্বর হবে চূড়ান্ত পর্ব। তখনই বিশ্ব দেখবে এ বছরের সেরা সুন্দরীকে। এখন পর্যন্ত ৬৯টি দেশ মিস ওয়ার্ল্ডের জন্য তাদের প্রতিনিধি চূড়ান্ত করেছে।
উল্লেখ্য, ১৯৯৪ সালে প্রথম মিস বাংলাদেশ অংশ নেন বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায়। তিনি ছিলেন আনিকা তাহের। এরপর ইয়াসমিন বিলকিস সাথী (১৯৯৫), রেহনুমা দিলরুবা চিত্রা (১৯৯৬), শায়লা সিমি (১৯৯৮), তানিয়া রহমান তন্বী (১৯৯৯), সোনিয়া গাজী (২০০০), তাবাসসুম ফেরদৌস শাওন (২০০১) মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন।
দেড় যুগ পর পুনরায় ২০১৭ সালে অন্তর শোবিজ আবারও মিস ওয়ার্ল্ডে প্রতিনিধি পাঠানোর উদ্যোগ নেয়।