ঢাবিতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের নবনির্বাচিত সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামলের নেতৃত্বে প্রায় শতাধিক নেতা-কর্মী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে অবস্থান নেয় ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে।

রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টার কিছু সময় পর ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা “খালেদা…জিয়া” স্লোগান দিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে।

এসময় তারা মধুর ক্যান্টিনে প্রবেশ করে। একইসময় ছাত্রলীগের শতশত নেতাকর্মীও সেখানে ভিড় করে এবং পালটা স্লোগান দিতে থাকে। স্লোগান- পাল্টা স্লোগানে মুখর হয়ে ওঠে মধুর ক্যান্টিন।

পরে বিক্ষোভ মিছিল শেষে দেশের বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজগুলোতে ছাত্রদলের সহাবস্থান নিশ্চিত করতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মোহাম্মদ আখতারুজ্জামানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ছাত্রদল নেতারা।

এসময় উপাচার্য তাদের, বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজগুলোতে যেনো কোনোধরনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না হয় সেবিষয়ে উপদেশ দেন এবং সকল সংগঠনগুলোকে মিলে-মিশে কাজ করার আহ্বান জানান।

ছাত্রদল ক্যাম্পাসে প্রবেশের আগে থেকেই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস মধুর ক্যান্টিনে উপস্থিত ছিলেন। মধুর ক্যান্টিনে প্রবেশ করে ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল লেখক ভট্টাচার্যের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

প্রায় এক ঘণ্টা অবস্থানের পর নেতাকর্মীদের নিয়ে মধুর ক্যান্টিন ছেড়ে যান ছাত্রদলের নতুন সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক।

এসময় শ্যামল সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা দায়িত্ব পাওয়ার পর প্রথম মধুর ক্যান্টিনে এসেছি কিন্তু ছাত্রলীগ আমাদের সঙ্গে সৌজন্যমূলক আচরণ করেনি। তারা উস্কানিমূলক স্লোগান দিয়েছেন। আমরা বলবো, ক্যাম্পাসে এখনও সহাবস্থান নিশ্চিত হয়নি।”

তিনি আরও বলেন, “শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ে সবসময় পাশে থাকবে ছাত্রদল। আমাদের প্রথম পদক্ষেপ হবে, বিশ্ববিদ্যালয়ে কার্যকর সহাবস্থান ও গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করা।”