কুমিল্লায় স্বপ্নের মটরসাইকেল নিয়ে ফেরা হলো না ২ ভাইয়ের

মাছুম কামাল, স্টাফ রিপোর্টার::

স্বপ্ন ছিলো মটর সাইকেল কেনার। কেনাও হলো, কিন্তু বাড়ী ফেরা হলো না আর। নতুন মোটর সাইকেল কিনে ঢাকা থেকে বাড়ী ফেরার পথে সড়ক দূর্ঘটনায় কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার দুলালপুর গ্রামের রুবেল মিয়া (২৫) ও সুমন মিয়া (২২) নামের আপন দুই ভাই নিহত হয়েছেন।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহা সড়কের দাউদকান্দি উপজেলার রায়পুরা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত রুবেল মিয়া ও সুমন মিয়া ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার দুলালপুর (পশ্চিমপাড়া) গ্রামের হোসেন মেম্বারের বাড়ির সিএনজি (অটোরিক্সা) চালক আক্তার হোসেনের ছেলে।

তাদের অকাল মৃত্যুতে ঐ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। নিহতদের বাবা আক্তার হোসেন সাংবাদিকদের জানান, ‘আমার ছেলে রুবেল ও সুমন নারয়নঞ্জ জেলায় আদমজি ইপিজেডে চাকরি করতো।

তাদের দীর্ঘদিনে স্বপ্ন ছিলো একটি সুন্দর মোটর সাইকেলের। শুক্রবার সাপ্তহিক ছুটি হওয়ায় গত বৃহস্পতিবার ইপিজেডের কাজ শেষ করে ঢাকা থেকে সুজকি (জিক্সার) মডেলের নতুন মোটর সাইকেল কিনে একইদিন রাতে বাড়ি আসার উদ্দোশ্যে দুই ভাই মোটর সাইকেল যোগে ঢাকা থেকে রওয়ানা দেয়।

পরে তারা এক সময় ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি উপজেলার রায়পুরা এলাকায় পৌছালে পেছন থেকে আসা অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় দুই ভাই ছিটকে পড়ে যায়। খবর পেয়ে দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করে।

তাদের মোবাইল ফোন থেকে পুলিশ আমাদের ফোন করে বিষয়টি জানায়। খবর পেয়ে আমরা ঘটনারদিন রাতেই দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে গিয়ে যোগাযোগ করি।

পুলিশ আমাদের জানায়, আমার বড় ছেলে রুবেল ঘটনাস্থলেই নিহত হয় এবং আমার ছোট ছেলে সুমনকে আহত অবস্থায় তারা ঢাকা মেডিকেলে পাঠালে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক সুমনকে মৃ’ত ঘোষনা করে।

পরে তারা একইদিন রাতে ঘটনাস্থল থেকে নিহত রুবেল ও সুমনের লাশ নিজ গ্রামে নিয়ে আসে। পরদিন গতকাল শুক্রবার বাদ জুমা দুলালপুর কেন্দ্রীয় কবরস্থান জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে নামাজের জানাযা শেষে কেন্দ্রীয় কবরস্থানে রুবেল ও সুমন দুই ভাইয়ের লা’শ দাফন করা হয়।’

সূত্রঃ তালাশ বাংলা