‘আবরারের জানাজা দুই মিনিটের মধ্যে শেষ করার নির্দেশ ছিল’

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) নিহত ছাত্র আবরার ফাহাদের জানাজা দুই মিনিটের মধ্যে শেষ করার নির্দেশ দিয়েছিল পুলিশ, এমনই অভিযোগ করেছেন আবরারের ছোটভাই ফায়াজ।

আবরারের জানাজা দুই মিনিটের মধ্যে শেষ করার নির্দেশ ছিল জানিয়ে এ সময় ফায়াজ বলেন, ‘কালও যখন আমার ভাইয়ের জানাজা হয় তখন তিনি বলেছিলেন দুই মিনিটের মধ্যে জানাজা শেষ করতে হবে। কিভাবে তিনি এটা বলেন?’

তিনি বলেন, ভিসি সাহেব যখন ফিরে যাচ্ছিলেন তখন আমি তাঁর সঙ্গে কথা বলতে যাই। তখন এখানকার দায়িত্বে থাকা অ্যাডিশনাল এসপি মোস্তাফিজুর রহমান আমার বুকে কনুই দিয়ে আঘাত করেন।

যদিও কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাত বিষয়টিকে অস্বীকার করে বলেন, ‘আবরারের বড় ভাই ভিসি সাহেবকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করতে হাত তুলেছিলেন। অ্যাডিশনাল এসপি সেটা ঠেকিয়েছেন। এটাই তাঁর অপরাধ। 

দুই মিনিটে জানাজা শেষ করতে হবে এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে এসপি বলেন,  দুই মিনিটে জানাজা করার প্রশ্নই ওঠে না। যেটা সম্ভব না সে কথা কিভাবে বলবে। পুলিশ যেন ভিক্টিমাইজ না হয়, সেজন্য আমরা জেলা প্রশাসক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, অতিরক্তি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম), উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ভিসি সাহেবের সঙ্গে ওই স্থানে যাই। এর পরও এমন একটা অভিযোগ কেন উঠল বুঝতে পারলাম না। ’