না ফেরার দেশে চলে গেলেন নির্মাতা ও অভিনেতা হুমায়ূন সাধু

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) দিনগত রাত দেড়টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করে না ফেরার দেশে চলে গেলেন নির্মাতা ও অভিনেতা হুমায়ূন সাধু (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নাইলাহি রাজিউন)।

তার মৃত্যুর খবর জানিয়ে নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী বলেন, ‘সাধুকে তিনদিন ধরে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। অবশেষে সে জীবন যুদ্ধে হেরে আমাদের ছেড়ে চলে গেল।’

এরপর বৃহস্পতিবার দিনগত রাত ২টা ৫৫ মিনিটে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী জানান, হুমায়ূন সাধুর পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে এসেছেন। তারা সবাই মিলে আলোচনা করে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবেন।

প্রসঙ্গত৷ গত ২৯ সেপ্টেম্বর হুমায়ূন সাধুর প্রথম ব্রেন স্ট্রোক হয়। এরপর হুমায়ূন সাধুকে চট্টগ্রামের পাঁচলাইশের পার্কভিউ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে তাকে ১৩ অক্টোবর রাজধানীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে স্থানান্তর করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। 

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) তাকে বিদেশে নিয়ে অস্ত্রোপচারেরও প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু রোববার (২০ অক্টোবর) দিবাগত রাত ২টার দিকে হঠাৎ সাধুর দ্বিতীয় ব্রেন স্ট্রোক হয়। 

এরপরই তাকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন বৃহস্পতিবার তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।