খালেদা জিয়াকে জেলে রেখে দলত্যাগ বিশ্বাসঘাতকতা: আখতারুজ্জামান

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান এবং ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এম মোরশেদ খান দল থেকে পদত্যাগ করেছেন।

বয়সের কারণ দেখিয়ে মাহবুবুর রহমান পদত্যাগ করলেও মূলত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের মতের সঙ্গে তার মত মিলছিল না। বিদেশ থেকে তারেক রহমানের দল পরিচালনার সমালোচক তিনি। এছাড়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণের বিরোধী ছিলেন এই জ্যেষ্ঠ নেতা।

অন্যদিকে মোরশেদ খান ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করলেও মূলত ক্ষোভ-অভিমান থেকেই দল ছেড়েছেন প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে দল করে আসা এই নেতা। 

তাদের পদত্যাগের বিষয়ে বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য মেজর (অব.) মো. আখতারুজ্জামান ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, খালেদা জিয়াকে জেলে রেখে দল ছেড়ে চলে যাওয়া বিশ্বাসঘাতকতা ও কাপুরুষতা।

লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমানকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, দল ছাড়া কোনো ভালো সিদ্ধান্ত হয় না। আজকে দল একটি মহাসংকটের মধ্যে দিয়ে সামনে এগিয়ে যাচ্ছে। দলে সংকট আছে কিন্তু সমস্যা নাই। দলের নেতৃত্ব সুদৃঢ়।

‘তারেক রহমানের নেতৃত্ব মেনে নিয়ে দেশমাতা খালেদা জিয়াকে আপনারা কথা দিয়েছিলেন তার নেতৃত্বের অবর্তমানে আপনারা দলকে শক্ত হাতে সঠিক পথে চালাবেন।’

মেজর আখতার আরও বলেন, আপনাদের আশ্বাসে এবং ভরসায় দেশমাতা খালেদা জিয়া সেদিন একা স্বেচ্ছায় জেলে চলে গিয়েছিলেন। আজকে আপনারা দেশমাতা খালেদা জিয়া, আপনাদের শ্রদ্ধেয় চেয়ারম্যানকে জেলে রেখে দল ছেড়ে দিচ্ছেন, তা সম্মানজনক বা পুরুষোচিত কাজ হিসাবে ইতিহাসে মূল্যায়ন করা হবে না। বরং আপনারা বিশ্বাসঘাতক বা কাপুরুষ হিসেবে ইতিহাসে মূল্যায়িত হবেন, তা কিন্তু জনমনে বিশ্বাস।

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের দ্বিমত থাকবে। দলে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকবে। নেতৃত্ব ভালো নাও লাগতে পারে। কিন্তু দল আমাদের সবার। দলকে সবাই মিলে রক্ষা করতে হবে। এটিই জনমনে প্রত্যাশা।’