হাসপাতালের বেড থেকে ভিডিও বার্তায় যা বললেন ভিপি নুর

বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বেড থেকে ফেসবুক লাইভে দেয়া এক বক্তব্যে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের ভিপি নুরুল হক নুর বলেছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মত জায়গায় হামলা করেও যদি ক্ষমতার জোড়ে সন্ত্রাসীরা বেঁচে যায় তাহলে এরা অন্যান্য জায়গায় আরও এমন ঘটনা ঘটাবে। এ জন্য সাধারণ মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

হত্যাচেষ্টাসহ কয়েকটি অভিযোগ এনে নুরসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের মামলা দায়েরের প্রতিক্রিয়ায় এ ফেসবুক লাইভ করেন ভিপি নুর।

তিনি বলেন, আমরাই যেখানে হামলার শিকার হয়েছি সেখানে উল্টো আমাদের নামে মামলা করা হয়েছে। অথচ ভিডিও ফুটেজ থাকার পরেও হামলার ঘটনায় যারা সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছে তাদের গ্রেফতারে কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। একটি ঘটনা ঘটে, আন্দোলন শুরু হয়। আন্দোলন হলে সরকার লোক দেখানো একটা ব্যবস্থা গ্রহণ করে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয় না।

ফেসবুক লাইভে নুর আরও বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মত জায়গায় হামলা করেও যদি ক্ষমতার জোড়ে এই সন্ত্রাসীরা বেঁচে যায় তাহলে এরা অন্যান্য জায়গায় আরো এমন ঘটনা ঘটাবে। সাধারণ মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। সরকারের প্রতি আহবান জানাচ্ছি জন বিস্ফোরণ ঘটার আগেই হামলার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের গ্রেফতার করুন।

উল্লেখ্য, গত ২২ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুর ও তার অনুসারীদের ওপর হামলা চালায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতাকর্মীরা।

জানা গেছে, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুলের নেতৃত্বে অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী এ হামলায় অংশ নেন।

এ ঘটনায় গত সোমবার হামলার ঘটনায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আল মামুন ও ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্যকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। পরে মঙ্গলবার গ্রেফতার করা হয় মেহেদী হাসান শান্তকে। তিনি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশের দফতর সম্পাদক। 

কিন্তু বুধবার রাতে ভিপি নুরসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টা মামলা করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের পক্ষ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের শিক্ষার্থী ডিএম সাব্বির হোসেন বাদী হয়ে মামলাটি করেন। মামলায় ডাকসু ভবনে অনধিকার প্রবেশ করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতাকর্মীদের হত্যাচেষ্টা ও মালামাল চুরিসহ একাধিক অভিযোগ আনা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।