ভোটে জিততে হিন্দু-মুসলিম বিভাজনের খেলায় বিজেপি: বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা

শনিবার কেরালার রাজধানী তিরুবনন্তপুরমে এক সভায় ভারতের বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি চিদম্বরম অভিযোগ করে বলেন, আগামী ২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গ এবং আসামে বিধানসভা নির্বাচন। এই দুই রাজ্যে ক্ষমতা দখলের জন্য দেশে হিন্দু এবং মুসলিমদের মধ্যে বিভাজনের খেলায় নেমেছে বিজেপি।

এছাড়া তিনি দাবি করেছেন, দেশে সাম্প্রদায়িক বিভাজন সৃষ্টির জন্যই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন তৈরি করা হচ্ছে।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে শনিবার তিরুবনন্তপুরমে রাজভবনের বাইরে ‘মহা জনসভা’র আয়োজন করে প্রদেশ কংগ্রেস। এই সভার প্রধান বক্তা চিদম্বরমের ঝাঁজালো আক্রমণ থেকে রেহাই পাননি দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

চিদম্বরম বলেন, ধর্মের ভিত্তিতে মানুষের মধ্যে ভেদাভেদ সৃষ্টির বিজেপির মনোবাঞ্ছা কোনও দিনই পূরণ হবে না।

এনআরসি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পরস্পর বিরোধী মন্তব্য করে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করতে চাইছেন বলেও অভিযোগ করেন চিদম্বরম।

দেশজুড়ে এনআরসি চালু হলে কী হতে পারে, আসমের সাম্প্রতিক নজির তুলে ধরে এই কংগ্রেস নেতা বলেন, আসামে এনআরসির ফলে ১,৬০০ কোটি টাকা জলে গিয়েছে। তালিকা থেকে বাদ পড়েছে রাজ্যের ১৯ লক্ষ বাসিন্দার নাম। দেশজুড়ে এনআরসি চালু হলে লক্ষ লক্ষ মানুষ গৃহহীণ হয়ে পড়বেন। ইন্ডিয়া টুডে।