নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করেই “থার্টি ফার্স্ট নাইট” উদযাপন

নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করেই আন্দোলনকারীরা দশকের শেষ রাত উদযাপন করল ভারতে। রাত ১২টায় নতুন দশককে স্বাগত জানানো হয় দেশটির জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে।

দিল্লিতে ১১৮ বছরে দ্বিতীয় শীতলতম ডিসেম্বরের শেষ রাতে চলা এই আন্দোলন নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছে নারীরা। অনেক তাদের শিশুদেরও বিক্ষোভের স্থানে নিয়ে এসেছেন। কম্বলের গাদার মধ্যে তাঁবু বানিয়ে শয়ে শয়ে মানুষ রয়েছেন এখানে।

জীবনে প্রথম কোনও প্রতিবাদে অংশ নেয়া এক মা সায়মা জানান, মা হিসাবে সন্তানদের ভবিষ্যৎ বাঁচাতেই আমি এখানে এসে প্রতিবাদ করছি। এটি সংবিধান বাঁচানোর লড়াই। দলিলের অভাবে সারা দেশ জুড়ে প্রচুর ভারতীয় সমস্যার মুখোমুখি হবেন।’

এদিকে এক বছরের মেয়েকে কোলে নিয়ে আন্দোলনে অংশ নেয়া সাজিদা খান বলেন, ‘প্রথমবার এ জাতীয় (বৈষম্যের) ঘটনা ঘটছে এবং আমি কঠোরভাবে এর বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছি।

এ সময় দিল্লির শাহীনবাগের স্থানীয়রাই আন্দোলনকারীদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করেন। সেই সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সহায়তায় কম্বল ও অন্যান্য দ্রব্য যোগাড়ের জন্য অর্থ সংগ্রহ করা হচ্ছে বলে জানায় ভারতের গণমাধ্যম।

সূত্র- এনডিটিভি।