দেশের সবচেয়ে বড় প্রতিমা—পটিয়ায়

পটিয়া রামকৃষ্ণ মিশন সেবাশ্রম কার্যকরী পরিষদের উদ্যোগে ও সার্বজনীন শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপন পরিষদের নেতৃত্বে চট্টগ্রামে পটিয়া রামকৃষ্ণ মিশন সেবাশ্রম প্রাঙ্গনে উদযাপিত হচ্ছে শারদীয় দুর্গাপূজা। ১৯৯০ সাল থেকে এখানে দুর্গাপূজা শুরু হলেও ২০০৯ সাল থেকে এলাকার তরুণদের মাধ্যমে বেশ জাঁকজমকপূর্ণভাবে পালিত হচ্ছে এই পূজা। ৪ মাসের পরিশ্রমের এক সার্থক রূপ দেখা যাচ্ছে এই পূজায়।

Durga Puja
দেশের সবচেয়ে দীর্ঘ প্রতিমা। ছবি : শাওন চৌধুরী

এবারের পুজোয় দেশের সর্ববৃহৎ প্রতিমা নির্মিত হয়েছে চট্টগ্রামের পটিয়ায় রামকৃষ্ণ মিশন সেবাশ্রম প্রাঙ্গণে। এই প্রতিমার উচ্চতা ৪০ ফিট, শুধু মুখাবয়ব ৫ ফিট। এটি নির্মাণ করতে সময় লেগেছে চার মাস। প্রতিমা শিল্পী আশীষ পাল ও গনেশ পাল এর হাতের ছোঁয়ায় প্রতিমা-টি হয়ে উঠেছে আকর্ষণীয় ও মনোমুগ্ধকর।

Durga Puja
প্রতিমার মঞ্চ। ছবি : কেশব দাশ

এ পূজায় প্রতিদিন নানা ধরনের আকর্ষণীয় কর্মসূচি থাকে। কর্মসূচিগুলোর মধ্যে হচ্ছে ষষ্ঠীর দিন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। সপ্তমীতে ফ্রী হেলথ ক্যাম্প। অষ্টমীতে বস্ত্র বিতরণ -হিন্দু,বৌদ্ধ, মুসলিম, নির্বিশেষে সকল সম্প্রদায়ের গরীব মানুষের জন্য এ-কর্মসূচি নেওয়া হয়ে থাকে। নবমীতে দুপুরে প্রসাদ বিতরন। দশমীতে পুষ্পান্জলী ও বিসর্জন।

Durga Puja
প্রতিমার মুখাবয়ব। ছবি : শাওন চৌধুরী

এখানে লক্ষণীয় যে, ওই দিন ৪০ ফিট দীর্ঘ ওই প্রতিমাটি বিসর্জন দেয়া হবে না, দেয়া হবে ছোট আরেকটি প্রতিকৃতির প্রতিমা। দর্শনার্থীদের অনুরোধ ও আগ্রহের দিক বিবেচনা করে ৪০ ফুট দীর্ঘ প্রতিমাটি কালীপূজা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত রাখা হবে। ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগ্রহী পূজারীগণ এই প্রতিমা দেখতে আসছে। প্রশাসন ও স্থানীয় সংসদ সদস্য মাস্টার শামসুল হক চৌধুরীর বিশেষ সহযোগিতায় খুব সুন্দর ও সুশৃংখলভাবে প্রতিদিন নানা কর্মসূচির মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এ পুজো।