ঐতিহাসিক এলাহাবাদ শহরের নাম পাল্টে করা হলো ‘প্রয়াগরাজ’

বদলে যাচ্ছে ভারতের উত্তর প্রদেশের ঐতিহাসিক শহর এলাহাবাদের নাম। আগামী বছরের লোকসভা নির্বাচনের আগেই এলাহাবাদ হয়ে যাবে প্রয়াগরাজ। সেই সাথে বদলে যাবে এলাহাবাদ রেলস্টেশনের নামও; হবে এলাহাবাদ প্রয়াগরাজ রেলস্টেশন। গতকাল মঙ্গলবার এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য মন্ত্রিসভা ।

এ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেছেন, এলাহাবাদের নাম বদলের ব্যাপারে দীর্ঘদিনের দাবি মেনে সিলমোহর দিয়েছে রাজ্য মন্ত্রিসভা।

তবে রাজ্য মন্ত্রিসভার এই সিদ্ধান্তের পর বিজেপি বিরোধীরা বলছেন, আগামী বছর অনুষ্ঠেয় লোকসভা নির্বাচনের আগে হিন্দু আবেগ উসকে দেওয়ার জন্য যোগী আদিত্যনাথ সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

উত্তর প্রদেশ সরকারের এমন সিদ্ধান্তে কংগ্রেস নেতা প্রমোদ তেওয়ারি বলেছেন, লোকসভা ভোটের কথা মাথায় রেখে হিন্দুত্বের তাস খেলতে চাইছে যোগী আদিত্যনাথ সরকার। কারণ, সরকার বুঝতে পারছে কাজের নিরিখে আর জিততে পারবে না বিজেপি। তাই এখন হিন্দুত্বকে ভরসা করে এগোতে চাইছে তারা।

দেশটির রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন, ভারতে ৮০ শতাংশ হিন্দু জনগোষ্ঠীর মধ্যে হিন্দু্ত্ববাদ জাগিয়ে দিয়ে বিজেপি আগামী নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে আবারও ক্ষমতায় আসার পরিকল্পনা আঁটছে।

এদিকে, উত্তরপ্রদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সিদ্ধার্থ নাথ সিং স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেছেন, “এই শহরটিকে আগে প্রয়াগরাজ নামে ডাকা হতো। যারা এই সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করছেন তাদের মা-বাবার দেওয়া নাম বদলে দিলে কেমন লাগবে?”

এই সিদ্ধান্তে মন্ত্রিসভার সব সদস্য খুশি উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, “আজ থেকে শহরটিকে এলাহাবাদের পরিবর্তে প্রয়াগরাজ নামে ডাকা হবে।”

প্রসঙ্গত, একসময় এলাহাবাদের নাম ছিল প্রয়াগ। ষোড়শ শতকে মোগল সম্রাট আকবর গঙ্গা ও যমুনা নদীর এই প্রয়াগের মিলনস্থলে গড়ে ছিলেন একটি দুর্গ। এরপর ওই দুর্গ ও সন্নিহিত এলাকার নাম দেওয়া হয় এলাহাবাদ। পরে সম্রাট শাহজাহান গোটা শহরের নাম রাখেন ইলাহাবাদ বা এলাহাবাদ।