মাহমুদুল্লাহ’র অধিনায়কত্বে টেস্ট দলে নতুন চার মুখ

আগামী ৩ নভেম্বর থেকে সিলেটে প্রথম এবং ১১ নভেম্বর থেকে মিরপুরে দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। দলে ডাক পেয়েছেন চার নতুন মুখ। তারা হলেন- ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন, পেস অলরাউন্ডার আরিফুল হক, স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু এবং পেসার খালেদ আহমেদ।

সম্প্রতি ওয়ানডেতে ভালো পারফরমেন্সের সুবাদে টেস্ট দলেও ডাক পেলেন মিথুন। প্রথম শ্রেনির ক্রিকেটে ৮৮ ম্যাচে ১২টি সেঞ্চুরি ও ২৪টি হাফ-সেঞ্চুরি রয়েছে তার। ৩৫ দশমিক ৫৯ গড়ে ৪৭৭০ রান করেছেন মিথুন। এশিয়া কাপে গুরুত্বপূর্ণ সময়ের দু’টি হাফ-সেঞ্চুরির ইনিংস খেলেন ২৭ বছর বয়সী মিথুন। এশিয়া কাপের চলমান জাতীয় লিগের একটি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। বরিশাল বিভাগের বিপক্ষে ঐ ম্যাচে ৭২ রান করেন খুলনা বিভাগের মিথুন।

টি-২০ দিয়ে ইতোমধ্যে বাংলাদেশের জার্সি গায়ে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন আরিফুল। দীর্ঘদিন ধরে ওয়ানডে দলেও আছেন তিনি। তবে এখনো ওয়ানডে অভিষেক হয়নি তার। এবার টেস্ট দলে সুযোগ পেলেন আরিফুল। প্রথম শ্রেনির ক্রিকেটে বেশ অভিজ্ঞ এই ডান-হাতি ব্যাটসম্যান। ৭৬ ম্যাচে ৮টি সেঞ্চুরি ও ১৬টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ৩৪০৫ রান ও বল হাতে ১০০ উইকেট শিকার করেছেন ব্যাটিং অলরাউন্ডার আরিফুল। চলমান জাতীয় লিগের ২০তম আসরের প্রথম রাউন্ডে ডাবল-সেঞ্চুরি হাকিয়েছেন রংপুর বিভাগের এই খেলোয়াড়।

বাঁ-হাতি স্পিনার নাজমুল বর্তমানে ভালোই ফর্মে রয়েছেন। এশিয়া কাপে ৪ উইকেট শিকারের পর জাতীয় লিগে দুই ম্যাচে অংশ নিয়ে শিকার করেছেন ৮ উইকেট। এরপর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ২ উইকেট নেন তিনি। প্রথম শ্রেনির ক্রিকেটে ৫৪ ম্যাচে ১৪৪ উইকেট নিজের ঝুলিত ভরেছেন নাজমুল।

ডান-হাতি পেসার খালেদ। প্রথম শ্রেনির ক্রিকেটে ২০ ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে ২৬ বছর বয়সী এই খেলোয়াড়ের। ৪৮ উইকেট শিকার করেছেন তিনি। জাতীয় লিগের চতুর্থ রাউন্ডের ম্যাচে ঢাকা মেট্রোর বিপক্ষে ১০ উইকেট নিয়েছেন সিলেট বিভাগের খালেদ।

ডাক পাওয়া নতুন খেলোয়াড়দের মধ্যে পেসার খালেদ আহমেদ একেবারেই নতুন। মিঠুন আগেও টেস্ট দলে ছিলেন, তবে অভিষেক হয়নি। চার জনের মধ্যে মিঠুন ও অপু ওয়ানডে সিরিজে খেলছেন। আরিফুল ওয়ানডে দলে থাকলেও একাদশে এখনো জায়গা পাননি।

টেস্ট দলের নিয়মিত কাপ্তান সাকিব আল হাসানের ইনজুরির কারনে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পড়েছে মাহমুদুল্লাহর উপর। পাশাপাশি টাইগারদের নিয়মিত ওপেনার তামিম ইকবালও এশিয়া কাপে ইনজুরিতে পড়ায় আসন্ন টেস্ট সিরিজ মিস করবেন। উইন্ডিজদের বিপক্ষে খেলা স্কোয়াডে তাই ৫ জন ক্রিকেটারকে অন্তুর্ভুক্তি করা হয়েছে।

মুস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ মিথুন, আরিফুল হক, খালেদ আহমেদ এবং নাজমুল ইসলাম অপুকে যুক্ত করা হয়েছে টেস্ট সিরিজের জন্য। মিথুন এবং আরিফুল হক ছোট ফরম্যাটে ভালো খেলার কারনে টেস্ট সিরিজে সুযোগ পেয়েছেন।

আগামী ৩ নভেম্বর সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে সিরিজের প্রথম টেস্ট। এরপর ১১ নভেম্বর মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে।

টেস্ট দল : মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), ইমরুল কায়েস, লিটন কুমার দাস, মুমিনুল হক, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহীম, আরিফুল হক, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, আবু জায়েদ রাহী, শফিউল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ মিঠুন, খালেদ আহমেদ এবং নাজমুল ইসলাম অপু।