আগামী ১৫ বছরের মধ্যে চিন-আমেরিকা ভয়ঙ্কর যুদ্ধে জড়াবে

[su_divider top=”no”]ইউরোপে মোতায়েন মার্কিন সামরিক বাহিনীর সাবেক প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল বেন হজেস সতর্ক করে বলেছেন, আগামী ১৫ বছরের মধ্যে চীনের সঙ্গে আমেরিকার যুদ্ধ বাধার আশংকা রয়েছে।[su_divider top=”no”]

আগামী ১৫ বছরের মধ্যে চিনের সঙ্গে আমেরিকার যুদ্ধ বাধার আশংকা রয়েছে। অন্তত এমনটাই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ইউরোপে মোতায়েন মার্কিন সামরিক বাহিনীর প্রাক্তন প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল বেন হজেস।

বুধবার তিনি বলেন, ইউরোপের দেশগুলোর উচিত রাশিয়ার মোকাবেলায় তাদের যুদ্ধ সক্ষমতা আরও বাড়ানোর বিষয়ে কাজ করা। কারণ চিনের বিরুদ্ধে নিজের স্বার্থ রক্ষার জন্য আমেরিকাকে নজর দিতে হবে। ইউরোপের পাশাপাশি প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায় একইসঙ্গে চিনের হুমকি মোকাবেলা করার ক্ষমতা আমেরিকার নেই বলেই মন্তব্য তার।

অন্যদিকে ট্রাম্পের শীর্ষ সহযোগী স্টিভ ব্যানন মনে করেন, আগামী ৫-১০ বছরের মধ্যেই একাধিক ইস্যুতে সংঘাত বাঁধতে পারে আমেরিকা ও চীনের। বিতর্কিত দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের আধিপত্য রুখতেই যুদ্ধে জড়িয়ে পড়তে পারে দুই দেশ, এমনটাই দাবি ব্রিটিশ মিডিয়ার।

[su_divider top=”no”]মার্কিন দৈনিক ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল দাবি করেছে, দক্ষিণ চিন সাগরের কৃত্রিম দ্বীপে কামান বসিয়েছে বেজিং।[su_divider top=”no”]

বেন হজেস ২০১৪ সাল থেকে গত বছর পর্যন্ত ইউরোপে মোতায়েন মার্কিন বাহিনীর কমান্ডার ছিলেন। বর্তমানে তিনি ওয়াশিংটনের একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর ইউরোপিয়ান পলিসি অ্যানালাইসিস-এ স্ট্র্যাটেজিক এক্সপার্ট হিসেবে কাজ করছেন।

ভূরাজনৈতিক অগ্রাধিকারে পরিবর্তন এলেও ন্যাটো জোটের প্রতি মার্কিন সরকারের প্রতিশ্রুতি আগের মতোই রয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। এছাড়া, ইউরোপের নিরাপত্তাকে আমেরিকা তার মৌলিক স্বার্থ বলে বিবেচনা করে। ফলে ইউরোপে মার্কিন সামরিক বিনিয়োগ ও প্রশিক্ষণ অব্যাহত থাকবে বলে জনান বেন হজেস।

সূত্র: kolkata24x7